বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > উর্ধ্বমুখী করোনার সংক্রমণ, লকডাউনের পথে হাঁটল মধ্যপ্রদেশ
করোনার দাপটে লকডাউন, শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে কার্যকরের ঘোষণা মধ্যপ্রদেশে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
করোনার দাপটে লকডাউন, শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে কার্যকরের ঘোষণা মধ্যপ্রদেশে। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

উর্ধ্বমুখী করোনার সংক্রমণ, লকডাউনের পথে হাঁটল মধ্যপ্রদেশ

  • উর্ধ্বমুখী করোনাভাইরাস আক্রান্তের জেরে সিদ্ধান্ত।

উর্ধ্বমুখী করোনাভাইরাস আক্রান্তের জেরে এবার মধ্যপ্রদেশে লকডাউনের ঘোষণা করা হল। রাজ্যের শহরাঞ্চলে শুক্রবার সন্ধ্যা ছ'টা থেকে ৬০ ঘণ্টার লকডাউন শুরু হবে। তা চলবে সোমবার সকাল ছ'টা পর্যন্ত।

শুক্রবার মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান বলেন, ‘করোনাভাইরাস পরিস্থিতির জন্য মধ্যপ্রদেশের সকল শহর এলাকায় শুক্রবার সন্ধ্যা ছ'টা থেকে সোমবার সকাল ছ'টা পর্যন্ত লকডাউন থাকবে। যে শহরগুলিতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে, সেখানে বিপর্যয় মোকাবিলা গোষ্ঠীর বৈঠকের পর উপযুক্ত পদক্ষেপ করা হবে। আমরা বড় শহরগুলিতে কনটেনমেন্ট বা সংক্রমিত এলাকা চিহ্নিত করছি।’

বুধবার মধ্যপ্রদেশে ৪,০৪১ জন নয়া করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। তার ফলে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩১৮,০১৪। শেষ ২৪ ঘণ্টায় ১৩ জনের প্রাণহানির ফলে মৃতের সংখ্যা হয়েছে ৪,০৮৬। সেইসঙ্গে ২,২১৬ জন করোনা-মুক্ত হওয়ায় সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৮৭,৮৬৯। বিশেষত রাজ্যের দুই সবথেকে বড় শহর - ইন্দোর এবং ভোপালের পরিস্থিতি সবথেকে খারাপ। বুধবার ইন্দোরেই ৮৬৬ জন নয়া করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। ভোপালে সেই সংখ্যাটা ৬১৮। তার ফলে ইন্দোর এবং ভোপালে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭৪,৮৯৫ এবং ৫৫,২৫৫।

সেই পরিস্থিতিতে বুধবারই মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয়ের তরফে জানানো হয়, আগামী তিন মাস সকাল ১০ টা থেকে সন্ধ্যা ছ'টা পর্যন্ত রাজ্যের সরকারি অফিসগুলি খোলা থাকবে। প্রতি শনিবার এবং রবিবার অফিস বন্ধ থাকবে। অর্থাৎ প্রতি সপ্তাহে সোমবার থেকে শুক্রবার রাজ্য সরকারের অফিসে কাজ হবে। 

বন্ধ করুন