বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > হিল জুতোয় হড়কে ভাঙল পা, স্ত্রী'র বিরুদ্ধে মামলা দায়ের যুবকের
প্রতীকী ছবি : ইনস্টাগ্রাম (Instagram)
প্রতীকী ছবি : ইনস্টাগ্রাম (Instagram)

হিল জুতোয় হড়কে ভাঙল পা, স্ত্রী'র বিরুদ্ধে মামলা দায়ের যুবকের

বেকায়দায় লম্বা হাই হিল জুতোর উপর পা পড়ে তাঁর। সঙ্গে সঙ্গে হুমড়ি খেয়ে পড়েন তিনি। সিঁড়ি দিয়ে বেশ কয়েক ধাপ গড়িয়ে পড়েন।

সব বদলে দিল একটি জুতো। হবু স্ত্রী'র রাখা হাই হিলে হোঁচট খেয়ে সিঁড়ি থেকে পড়লেন এক ব্যক্তি। ভাঙল হাত-পা। হাসপাতালের বিশাল বিল দেখে রাগের চোটে শেষপর্যন্ত স্ত্রী'র বিরুদ্ধেই মামলা দায়ের করলেন স্বামী।

ঘটনাটি ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াইয়োর বাসিন্দা জন ওয়ালওয়ার্থ নামের ওই ব্যক্তি জানিয়েছেন, বাড়ির বেসমেন্টের সিঁড়ি দিয়ে নামছিলেন তিনি। হাতে ছিল চারটি ১ গ্যালন ভিনিগারের জগ। কিন্তু সেখানেই যে তাঁর হবু স্ত্রী এক জোড়া জুতো রেখে দিয়েছিলেন, তা বুঝতে পারেননি। বেকায়দায় লম্বা হাই হিল জুতোর উপর পা পড়ে তাঁর। সঙ্গে সঙ্গে হুমড়ি খেয়ে পড়েন তিনি। সিঁড়ি দিয়ে বেশ কয়েক ধাপ গড়িয়ে পড়েন।

ব্যথায় কার্যত অচৈতন্য হয়ে পড়েন তিনি। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। দেখা যায় পা ও হাতের হাড় মারাত্মকভাবে ভেঙে গিয়েছে। বেশ কয়েকদিন হাসপাতালে কাটে তাঁর। তিনটি অপারেশন হয়। বেশ কয়েক মাস ধরে চলে ফিজিকাল থেরাপি। এরই মধ্যে ২০১৯ সালের মে মাসে বাগদত্তার সঙ্গে বিয়েও সেরে ফেলেন ওই ব্যক্তি।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে হাসপাতালের বিল এমনিতেই সকলের সবচেয়ে বড় দুশ্চিন্তার কারণ। আর সেই আশঙ্কাই সত্যি হয়। জনের হাসপাতালের বিল দাঁড়ায় ৮০ হাজার ডলার। ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় ৬০ লক্ষ টাকার কাছাকাছি। এরপরেই হঠাত্ স্ত্রী'র বিরুদ্ধে চটে যান তিনি।

২০১৯ সালের অক্টোবরে স্ত্রী'র বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেন তিনি। জনের পক্ষের আইনজীবী জানান, 'অভিযুক্ত বাড়ির মধ্যে বিপদজনক পরিস্থিতি তৈরি করেছিলেন। একজন গৃহকর্ত্রীর দায়িত্ব পালনে তিনি সম্পূর্ণ ব্যর্থ।' শুধু তাই নয়। দীর্ঘদিন হাসপাতালে ও বিছানায় কেটেছে জনের। এই সময়ে চাকরিতে যেতে পারতেন না তিনি। ফলে কাজ হারানোয় প্রায় ১৮ হাজার মার্কিন ডলার বেতন পাননি তিনি।

অন্যদিকে গোটা ঘটনায় হতবাক মহিলা। তাঁর পক্ষের আইনজীবী জানিয়েছেন, 'তিনি নিয়মিতই ওই জায়গায় জুতো রাখতেন। এমনটা যে হবে তা তাঁর কল্পনাতীত। এর জন্য তিনি মর্মাহত। কিন্তু তার মানে এই নয় যে তাঁকে এর জন্য আইনত দায় স্বীকার করতে হবে। এটা একটা দুর্ঘটনা মাত্র।'

তিন বিচারপতির প্যানেল যদিও অভিযুক্ত মহিলাকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন। তাঁরা জানিয়েছেন, 'ওই ব্যক্তি চারটি ভারী জগ নিয়ে সিঁড়ি দিয়ে নামছিলেন। একটু সাবধান হলেই দুর্ঘটনাটা এড়ানো যেত। মহিলার যে এতে কোনও দোষ নেই, তা স্পষ্ট।'

্ট।'

বন্ধ করুন