লম্বা আইনি লড়াইয়ের পর জয়, খুশি নির্ভয়ার মা।  (PTI)
লম্বা আইনি লড়াইয়ের পর জয়, খুশি নির্ভয়ার মা। (PTI)

Nirbhaya convicts' hanging: চমকে দেওয়ার মতো শেষ ইচ্ছা মুকেশ ও বিনয়ের

শুক্রবার সাড়ে পাঁচটার সময় ফাঁসি হয় চার বন্দির।

নির্ভয়া খুন ও গণধর্ষণ মামলায় শুক্রবার সকালে তিহাড় জেলে ফাঁসি হল চার অপরাধীর। জেল কর্তৃপক্ষের থেকে এখন জানা গিয়েছে অপরাধীদের শেষ ইচ্ছে কি ছিল। এরমধ্যে অবশ্য মুকেশ সিং ও বিনয় শর্মার ইচ্ছে বিশেষ উল্লেখযোগ্য।

জেলে নিয়মিত ছবি আঁকত বিনয়। জেলসুপারকে তার আঁকা ছবি দিতে অনুরোধ করে সে। এটিই ছিল তার শেষ ইচ্ছে। অন্যদিকে অঙ্গদান করার ইচ্ছে প্রকাশ করে মুকেশ। বিনয় বলে যে তার কাছে যে হনুমান চালিসা আছে, সেটি পরিবারকে যেন দিয়ে দেওয়া হয়।

তবে মুকেশ, বিনয়, পবন গুপ্ত ও অক্ষয়, কেউই কোনও উইল বানিয়ে যায়নি। ফাঁসির আগে শেষ ইচ্ছে জিজ্ঞেস করা হয় অপরাধীদের। এদিন সেই হিসাবেই এই চার অপরাধীকে প্রশ্ন করে কর্তৃপক্ষ। এদিন সকাল সাড়ে পাঁচটার সময় ফাঁসি হয় এই চার অপরাধীর।

তার এক ঘণ্টা আগে জেল কর্তৃপক্ষ ও পশ্চিম দিল্লি জেলা ম্যাজিস্ট্রেট নেহা বনসল তাদের সঙ্গে জেলে দেখা করেন। নিয়ম অনুযায়ী, বন্দিদের কোনও উইল বানানোর ইচ্ছে থাকলে সেটি জেল সুপারিনটেনডেন্ট ও জেলা ম্যজিস্ট্রেটের সামনে বললে তখনই তা বানিয়ে দেওয়া হবে। তবে নির্ভয়াকে খুন করা এই চার অপরাধী উইল বানাতে চায়নি।


বন্ধ করুন