বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > PMLA-র রায় নিয়ে পুনর্বিবেচনায় রাজি সুপ্রিম কোর্ট, বিবেচনা করা হবে ২ দিক

PMLA-র রায় নিয়ে পুনর্বিবেচনায় রাজি সুপ্রিম কোর্ট, বিবেচনা করা হবে ২ দিক

ফাইল ছবি- পিটিআই (PTI)

৭ জুলাইয়ের সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করা পর্যালোচনা পিটিশনে দু'টি নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর নোটিশ জারি করেছে সুপ্রিম কোর্ট। রায়ের কিছু দিক পুনর্বিবেচনার প্রয়োজন।

প্রিভেনশন অফ মানি লন্ডারিং অ্যাক্ট (PMLA) [কার্তি চিদম্বরম বনাম ইডি] -তে গ্রেফতারির মতো কঠোর ব্যবস্থা বৈধ বলে রায় দিয়েছিল শীর্ষ আদালত। ২৭ জুলাইয়ের সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করা পর্যালোচনা পিটিশনে দু'টি নির্দিষ্ট বিষয়ের উপর নোটিশ জারি করেছে সুপ্রিম কোর্ট। অর্থাত্ সেই রায়ের ফের পর্যালোচনা করা হবে। 

ভারতের প্রধান বিচারপতি (CJI) এন ভি রামান্না একটি বেঞ্চ বলেন, পিএমএলএর উদ্দেশ্য মহৎ এবং অর্থ পাচারের অপরাধ গুরুতর। তাই রায়ের কিছু দিক পুনর্বিবেচনার প্রয়োজন।

যে দুটি বিষয় আদালত বিশেষভাবে উল্লেখ করে, সেগুলি হল অভিযুক্তকে এনফোর্সমেন্ট কেস ইনফরমেশন রিপোর্টের (ECIR) একটি প্রতিলিপি প্রদান না করা এবং নির্দোষ হওয়ার অনুমানের নীতির বিপরীতে চলা।

'আমরা সম্পূর্ণরূপে মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ সমর্থন করি। ধরনের অপরাধ মেনে নেওয়া যাবে না। এর(PMLA) উদ্দেশ্য মহৎ। (কিন্তু) ECIR প্রদান না করা এবং নির্দোষতার অনুমানের উল্টো পথে চলা, এমন দুটি বিষয় যা আমাদের মতে পুনর্বিবেচনার প্রয়োজন,' সিজেআই মন্তব্য করেন।

এ বিষয়ে নোটিশ জারি করা হবে এবং কেন্দ্রীয় সরকারকে প্রতিক্রিয়া জানাতে দেওয়া হবে, জানিয়েছে আদালত।

সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা অবশ্য এর বিরোধিতা করেছেন। তিনি পাল্টা বলেন, বিচারের ত্রুটি পর্যালোচনার ভিত্তি হতে পারে না। এটি একটি স্বতন্ত্র বিধান নয়। আমরা বৃহত্তর বৈশ্বিক কাঠামোর অংশ। সুপ্রিম কোর্টই বলেছে যে এটি আন্তর্জাতিক এবং সাংবিধানিক পরিকল্পনার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ।

'আমরা টাকা পাচার বন্ধ করতে বা কালো টাকা ফিরিয়ে আনার জন্য সরকারের বিরোধিতা করছি না এবং এগুলি গুরুতর অপরাধ,' সিজেআই বলেন।

তুষার মেহতা বলেন, 'কিন্তু এর বিশ্বব্যাপী প্রতিক্রিয়া হবে।'

তার উত্তরে প্রধান বিচারপতি বলেন, 'এটি একটি গুরুতর বিষয়, আমরা সরকারের উদ্দেশ্য নিয়ে সন্দেহ করছি না। তবে প্রাথমিকভাবে সমস্যা রয়েছে। আমরা নোটিশ জারি করছি। রিট পিটিশনগুলি পর্যালোচনা সহ শুনানি করা হোক।'

আদালত এরপর কেন্দ্রীয় সরকারকে নোটিশ জারি করে। সঙ্গে আদেশ দেয় যে অভিযুক্ত-পিটিশনকারীদের অন্তর্বর্তী সুরক্ষা আরও ৪ সপ্তাহের জন্য বাড়াতে হবে।

গত ২৭ জুলাই সুপ্রিম কোর্ট প্রিভেনশন অফ মানি লন্ডারিং অ্যাক্ট (PMLA)-এর বৈধতা বহাল রাখার রায় দেয়। টাকা পাচারের মামলায় কঠোর জামিনের শর্ত বহাল রাখা হয়।

সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে কংগ্রেস বিধায়ক কার্তি চিদাম্বরমে পর্যালোচনা পিটিশন দায়ের করে। গতকাল, বুধবার সেই শুনানির অনুমতি দেয় আদালত।

ঘরে বাইরে খবর
বন্ধ করুন

Latest News

কোনও জমি নষ্ট হবে না! অব্যবহৃত জায়গায় নয়া শিল্প গড়ে তুলবে রাজ্য, তৈরি 'ব্যাঙ্ক' আমেরিকায় রহস্যজনক ‘মৃত্যু’ বাংলার নৃত্যশিল্পীর,সাহায্য চেয়ে পোস্ট বন্ধু দেবলীনার ‘‌সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে আবার গ্রেফতার করা উচিত’‌, আবার বিস্ফোরক কুণাল ফের নজরে উসমান খোয়াজা! ম্যাচের মাঝেই তুলে ফেলতে হল ব্যাটের বিশেষ স্টিকার ককটেল নাইটে ব্লেক লাইভলির গালা ২০২২ লুক বেছে নেন রাধিকা, ছবি না দেখলে মিস করবেন ‘এ তো বস্তির ছেলে পচা…’, গলায় যেন ‘প্রজাপতি’, নতুন লুকে চূড়ান্ত ট্রোল নীল কাকদ্বীপ–নামখানা উপকূল এলাকায় লাইসেন্স নবীকরণ বন্ধ, মাথায় হাত মৎস্যজীবীদের‌ কর্ণাটক বিধানসভায় 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ' স্লোগান কাণ্ডে নয়া মোড়, আটক ১ Walking Tips: আপনার জন্য প্রতিদিন কত পা হাঁটা জরুরি? কলকাতা পুলিশে প্রায় ৪০০০ পদে নিয়োগের জন্য আবেদন শুরু, কীভাবে করবেন? দেখুন পুরোটা

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.