বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Sheena Bora Murder: 'মৃত' শিনা বোরাকে দেখা গিয়েছে বিমানবন্দরে! দাবি ইন্দ্রাণীর

Sheena Bora Murder: 'মৃত' শিনা বোরাকে দেখা গিয়েছে বিমানবন্দরে! দাবি ইন্দ্রাণীর

শিনা বোরা ও ইন্দ্রানী মুখোপাধ্যায়। সংগৃহীত ছবি 

নিজের মেয়ে শিনা বোরাকে হত্যার অভিযোগে ২০১৫ সালে মা ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করা হয়েছিল। ইন্দ্রাণীর গ্রেফতার সাড়া ফেলে দিয়েছিল গোটা দেশে। দীর্ঘ ৬ বছর ধরে জেলবন্দি ছিলেন ইন্দ্রাণী। তবে সম্প্রতি তিনি জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। তবে এর আগে ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায় সিবিআইকে চিঠি লিখে জানিয়েছিলেন, বেঁচে আছে শিনা বোরা।

শিনা বোরাকে দেখা গিয়েছে বিমানবন্দরে। গুয়াহাটি বিমানবন্দরে। সিসিটিভি ভালো করে দেখুন। দাবি মা ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়ের। এদিকে বর্তমানে জামিনে মুক্ত হয়েছেন তিনি। তবে তিনি আদালতে পিটিশন জমা দিয়ে জানিয়েছেন বৃহস্পতিবার একেবারে শিনা বোরার মতোই একজনকে দেখা গিয়েছে গুয়াহাটি বিমানবন্দরে। এদিকে ইন্দ্রাণীর এই দাবিকে সমর্থন জানিয়েছেন তাঁর আইনজীবীরা। তবে এর আগেও ইন্দ্রাণী একই ধরনের দাবি করেছিলেন বলে খবর। এবার ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়ের আবেদনে সাড়া দিয়েছে আদালত। আদালত বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য সিবিআইকে নির্দেশ দিয়েছে।

এবার একটু পিছন ফিরে দেখা যাক। ২০১২ সাল। ওই বছরের ২৫ এপ্রিল গাড়ির মধ্যে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছিল এক যুবতীকে। দাবি করা হয়েছিল সেই সময় ইন্দ্রাণী প্রাক্তন স্বামী সঞ্জীব খান্না ও গাড়ি চালক শ্যাম রাইয়ের সহায়তায় রায়গড়ের জঙ্গলে শিনার দেহ পুড়িয়ে মাটি চাপা দেওয়া হয়। শিনা ছিল ইন্দ্রাণী ও তাঁর সঙ্গী সিদ্ধার্থ দাসের মেয়ে। তবে পরবর্তী সময়ে ইন্দ্রাণী শিনাকে নিজের বোন হিসাবে বিভিন্ন জায়গায় পরিচয় দিতেন। তবে ইন্দ্রাণী তৃতীয় স্বামী পিটার মুখোপাধ্য়ায়ের ছেলে রাহুল মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে শিনার সম্পর্ক মেনে নিতে পারেননি মা ইন্দ্রাণী। এনিয়ে টানাপোড়েন শুরু হয়। এরপরই শিনাকে খুন করে, পুড়িয়ে, পুঁতে ফেলা হয়েছিল বলে অভিযোগ। তবে ইন্দ্রাণী বার বারই দাবি করেছেন শিনা বিদেশে পড়াশোনা করে। সে বেঁচে আছে।

এর আগে তিনি দাবি করেছিলেন, শিনা কাশ্মীরে রয়েছে। সেখানে নাকি তাকে দেখা গিয়েছে। এবার তিনি দাবি করছেন শিনাকে দেখা গিয়েছে গুয়াহাটি বিমানবন্দরে। গোটা বিষয়টিতে ধোঁয়াশা থেকেই গিয়েছে। বাস্তবে শিনা কি আদৌ বেঁচে আছে তা নিয়ে নতুন করে শুরু হল চর্চা।

নিজের মেয়ে শিনা বোরাকে হত্যার অভিযোগে ২০১৫ সালে মা ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করা হয়েছিল। ইন্দ্রাণীর গ্রেফতার সাড়া ফেলে দিয়েছিল গোটা দেশে। দীর্ঘ ৬ বছর ধরে জেলবন্দি ছিলেন ইন্দ্রাণী। তবে সম্প্রতি তিনি জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। তবে এর আগে ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায় সিবিআইকে চিঠি লিখে জানিয়েছিলেন, বেঁচে আছে শিনা বোরা। তিনি চিঠিতে জানিয়েছিলেন যে, একজন মহিলা সরকারি আধিকারিক তাঁকে জানিয়েছেন তিনি শিনাকে ২৪শে জুন দেখেছেন। আর ইন্দ্রাণীর এই দাবিকে ঘিরে ফের এই মামলায় নয়া মোড় দেখা দিয়েছিল। এবার যে মহিলা ইন্দ্রাণীকে বলেছিলেন তিনি জম্মু ও কাশ্মীরে শিনাকে দেখেছেন তিনি এবার বয়ান দিতে প্রস্তুত। এমনটাই জানিয়েছিলেন ইন্দ্রাণীর আইনজীবী সানা আর খান। আইনজীবী সেই সময় জানিয়ে দিয়েছিলেন, ডাল লেকের কাছে শিনা বোরাকে দেখা গিয়েছে বলে ওই মহিলা দাবি করেছিলেন। এব্যাপারে তদন্ত করার জন্য আমরা সিবিআইয়ের কাছে আবেদন জানাব।

 

বন্ধ করুন