বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ৮ সিপিএম কর্মী আক্রান্ত ত্রিপুরায়, কাঠগড়ায় অজ্ঞাতপরিচয়ের দুষ্কৃতীরা
ত্রিপুরায় আক্রান্ত সিপিএম। প্রতিকী ছবি সৌজন্যে: টুইটার

৮ সিপিএম কর্মী আক্রান্ত ত্রিপুরায়, কাঠগড়ায় অজ্ঞাতপরিচয়ের দুষ্কৃতীরা

  • জিতেন্দ্র চৌধুরী বলেন, রবিবার রানিবাজার এলাকার ঘটনায় লাঠি ও রড দিয়ে তাঁদের কর্মীদের মারধর করা হয়েছে।

ত্রিপুরায় রাজনৈতিক জমি ক্রমেই সরগরম হয়ে উঠছে। আগরতলা থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে রানিবাজার এলাকা ঘিরে নতুন করে চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। সিপিএমের অভিযোগ, কর্মীদের ওপর সেখানে অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতীরা হামলা চালিয়েছে। ঘটনায় ৮ জন আহত হয়েছেন বলে খবর। তবে এই অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতীদের নেপথ্যে কোনও রাজনৈতিক শিবির রয়েছে কিনা তা স্পষ্ট নয়। রবিবারের ওই ঘটনা নিয়ে সোমবার মুখ খোলেন রাজ্যের সিপিএম সম্পাদক জিতেন্দ্র চৌধুরী।

জিতেন্দ্র চৌধুরী বলেন, রবিবার রানিবাজার এলাকার ঘটনায় লাঠি ও রড দিয়ে তাঁদের কর্মীদের মারধর করা হয়েছে। একই সঙ্গে তিনি এও বলেন, 'আমাদের এক কর্মী এখনও হাসপাতালে ভর্তি।' এদিকে, বিষয়টি জানাতে যখন তিনি এক পুলিশ কর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তাঁর দাবি ওই পুলিশ কর্তা বলেন, 'বিষয়টি সম্পর্কে তিনি শুনেছেন, তবে এখনও পর্যন্ত কোনও অভিযোগ এই বিষয়ে তিনি পাননি।' পুলিশ কর্তা তাঁকে জানান, 'আমরা এখনও এবিষয়ে কোনও অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে অবশ্যই এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেব।'

এদিকে ওই পুলিশ কর্তার কথাকে কার্যত নস্যাৎ করে দিয়েছেন, ত্রিপুরা সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক। জিতেন্দ্র চৌধুরী বলেন, 'ওঁরা সত্যি কথা বলছেন না। আমাদের দল ইতিমধ্যেই অভিযোগ দায়ের করে দিয়েছে।' ত্রিপুরা সিপিএমের দাবি, তারা অভিযোগ দায়ের করেছে। কিন্তু পুলিশ কর্তা অভিযোগ পাননি জানানোয়, গোটা বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। উল্লেখ্য, এককালে বামেদের পোক্ত দুর্গ হিসাবে পরিচিত ত্রিপুরায় বর্তমানে বিজেপির বিপ্লব সরকারের দাপট শেষ পুর নির্বাচনেও দেখা গিয়েছে। তবে বামেদের এককালের পোক্ত পিচে এখন তৃণমূলের উত্থানও বেশ খানিকটা নজর কেড়েছে। এমন এক পরিস্থিতিতে রবিবার রানিবাজারে নতুন করে এমন হামলার ঘটনা ত্রিপুরার রাজনীতিতে চাঞ্চল্য এনেছে।

বন্ধ করুন