বাংলা নিউজ > ময়দান > আমি থাকতাম না, তিনটে বাচ্চাকে ২৯ সপ্তাহ বউ সামলেছে- ক্যান্ডিসকে মেডেল দিতে চান ওয়ার্নার
ডেভিড ওয়ার্নারের সুখী পরিবার।
ডেভিড ওয়ার্নারের সুখী পরিবার।

আমি থাকতাম না, তিনটে বাচ্চাকে ২৯ সপ্তাহ বউ সামলেছে- ক্যান্ডিসকে মেডেল দিতে চান ওয়ার্নার

  • ২০২০ সালের শুরু থেকে কোভিডের প্রভাবের কারণে বিশ্ব জুড়ে ক্রিকেটাররা টানা জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকতে বাধ্য হচ্ছেন। বিভিন্ন বিধিনিষেধের কারণে ক্রিকেটারদের পরিবারকে সব সময় সফরে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয় না।

কোভিডের কারণে এখন জৈব-সুরক্ষা বলয়ে থাকার কঠোর বিধিনিষেধ রয়েছে। যে কারণে দীর্ঘ সময়ে ক্রিকেটারদের পরিবারের থেকে দূরে থাকতে হচ্ছে। অস্ট্রেলিয়ার ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারকেও টানা পরিবারের থেকে দূরে থাকতে হয়েছে বা হচ্ছেও। এই সময়ে তাঁর স্ত্রী ক্যান্ডিস যে ভাবে তাঁদের তিন বাচ্চা এবং পরিবারকে সামলে রাখেন, তার জন্য অভিভূত ওয়ার্নার। তিনি বলেছেন, এর জন্য তাঁর স্ত্রী-র পদক পাওয়া উচিত।

২০২০ সালের শুরু থেকে কোভিডের প্রভাবের কারণে বিশ্ব জুড়ে ক্রিকেটাররা টানা জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকতে বাধ্য হচ্ছেন। বিভিন্ন বিধিনিষেধের কারণে ক্রিকেটারদের পরিবারকে সব সময় সফরে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয় না। ৩৫ বছরের ক্রিকেটার যোগ করেছেন, এত দীর্ঘ সময়ের জন্য পরিবার থেকে দূরে থাকাটা বেশ কষ্টের। তিনি তাঁর স্ত্রীকে অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং পরিস্থিতিতে সব দিক সুন্দর ভাবে সামলে রাখার জন্য একজন সাহসী মহিলা হিসাবে বর্ণনা করেছেন।

ওয়ার্নার একটি চ্যাট শো-তে বলেছেন, ‘বাড়িতে তিনটি বাচ্চা একা ম্যানেজ করা বেশ কঠিন। ২৯ সপ্তাহ ধরে ৩টি সন্তানকে নিয়ে একা সব দিক সামলানো সহজ নয়। আমার স্ত্রী-র সবচেয়ে বড় পদক পাওয়া উচিত।’

ওয়ার্নার আরও বলেছেন, ‘আমি ফেসটাইমে ছিলাম। দেখেছি, বাচ্চারা পুরো পাগল হয়ে যাচ্ছে। স্কুলের পর দিন শেষ। বাচ্চারা তো আর সবটা বোঝে না। বাচ্চাদের জন্য বিষয়টি কঠিন। ওরা অস্ট্রেলিয়ার বাইরে কোথাও যেতে পারে না। ওরা গত ছয় থেকে আট মাস ধরে স্কুল থেকে দূরে রয়েছে। ওদের দু'সপ্তাহের জন্য বাইরে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। এসে আইসোলেশন থাকতে হয়েছিল। মানসিক ভাবে ওদের পক্ষে এটা সম্ভব নয়।’

বন্ধ করুন