বাংলা নিউজ > ময়দান > Fact Check: T20WC দল থেকে বাদ পড়তে পন্তদের অন্তর্ভুক্তি নিয়ে মুখ খুললেন সঞ্জু?
সঞ্জু স্যামসন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে সুযোগ পাননি। আছেন ঋষভ পন্ত। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে পিটিআই এবং এএফপি)

Fact Check: T20WC দল থেকে বাদ পড়তে পন্তদের অন্তর্ভুক্তি নিয়ে মুখ খুললেন সঞ্জু?

  • Fact Check: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে সুযোগ পাননি সঞ্জু স্যামসন। তারপর একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে। তাতে সঞ্জুকে বলতে শোনা গিয়েছে, 'আমি যদি নিজের সতীর্থদের সঙ্গেই প্রতিযোগিতার কথা ভাবি, তাহলে আমি আমার দেশকে হতাশ করছি। আমার নিজের ভারতীয় দলকে হতাশ করছি।'

প্রায় দু'বছরের পুরনো ভিডিয়ো। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে সেই ভিডিয়োই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেল। তা নিয়ে সঞ্জু স্যামসনের প্রশংসায় মাতলেন নেটিজেনরা। যে ভিডিয়োয় সঞ্জুকে বলতে শোনা যায়, 'আমি যদি নিজের সতীর্থদের সঙ্গেই প্রতিযোগিতার কথা ভাবি, তাহলে আমি আমার দেশকে হতাশ করছি। আমার নিজের ভারতীয় দলকে হতাশ করছি।'

সম্প্রতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ১৫ জনের মূল দল এবং চারজন স্ট্যান্ড-বাই ঘোষণা করেছে ভারত, তাতে জায়গা পাননি সঞ্জু। তা নিয়ে তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন নেটিজেনদের একাংশ। তাঁদের প্রশ্ন, আইপিএল এবং ভারতীয় দলের হয়ে খেলার পরেও কীভাবে সঞ্জুকে বিশ্বকাপের দলে রাখা হল না? অথচ ফর্মহীন পন্তকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে নেওয়া হল?

আরও পড়ুন: MS Dhoni and Rishabh Pant: 'ধোনি যদি থাকতেন..', চাপের মুখে পন্ত রান-আউট ফস্কানোয় ফিরল ২০১৬-র স্মৃতি

সেই বিতর্কের মধ্যেই সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়ে যায়। তাতে সঞ্জুকে বলতে শোনা যায়, 'আমি যদি নিজের সতীর্থদের সঙ্গেই প্রতিযোগিতার কথা ভাবি, তাহলে আমি আমার দেশকে হতাশ করছি। আমার নিজের ভারতীয় দলকে হতাশ করছি।' সেই মনোভাবের কারণে সোশ্যাল মিডিয়ায় তুমুল প্রশংসিত হন সঞ্জু। নেটিজেনরা দাবি করেন, ‘বঞ্চিত হয়েও’ মহানুভবতার পরিচয় দিলেন ভারতীয় তারকা।

যদিও হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা দেখেছে যে ওই ভিডিয়োটি পুরনো। সঞ্জু সেই কথাটা বললেও ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দল ঘোষণার পর বলেননি। প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার আকাশ চোপড়ার ইউটিউব চ্যানেলের ‘ব্যাট অর বল’ অনুষ্ঠানে বলেছিলেন। ওই অনুষ্ঠানে ছিলেন সঞ্জু এবং শ্রেয়স গোপাল। যে ভিডিয়ো ২০২০ সালের ৯ অক্টোবর ইউটিউবে আপলোড করা হয়েছিল। যে সময় করোনাভাইরাসের ধাক্কা কাটিয়ে আবার ক্রিকেট শুরু হচ্ছিল।

কোন প্রসঙ্গে সঞ্জু সেই মন্তব্য করেছিলেন?

আকাশ প্রশ্ন করেছিলেন, ‘সঞ্জু, তুমি অত্যন্ত প্রতিভাবান। খেলার ধরণও দারুণ। রানও প্রচুর করেছ। আইপিএলে প্রচুর রান করেছ। যে ক্রিকেটার (আইপিএলের) কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজির প্রথম তিন-চারের মধ্যে ব্যাটিং করে, সে যে বিশেষ খেলোয়াড়, তা নিয়ে সন্দেহ নেই। ভারতীয় দলে সুযোগ মিলেছে। কিন্তু নিয়মিত সুযোগ মেলেনি। সেই বিষয়টি কীভাবে দেখ? তোমার কি মনে হয়, কোনও ভুল হয়ে গিয়েছে? পরপর আরও কয়েকটি ম্যাচে খেলার সুযোগ পেলে ভালো হত বলে মনে হয়? যখন সুযোগ মিলছে, তখন কয়েকটি বেশি ম্যাচ যদি খেলা যেত?’

আরও পড়ুন: Indian team for T20 World Cup 2022: পন্তেই আস্থা, ফিরলেন বুমরাহ, যাচ্ছেন কার্তিকও - T20 বিশ্বকাপের দল ঘোষণা ভারতের

সেই প্রশ্নের জবাবে সঞ্জু বলেছিলেন, ‘হ্যাঁ, সেটা হয়নি। তবে আমার মনে হয় যে আমি অত্যন্ত ভাগ্যবান। কারণ আমি পাঁচ বছর পরে ভারতীয় দলে ফিরে এসেছি। পাঁচ বছর আগেও ভারত বিশ্বের অন্যতম সেরা ক্রিকেট দল ছিল। এখনও ভারতের র‌্যাঙ্ক এক। সেই দলের প্রথম ১৫ বা প্রথম একাদশে জায়গা পাওয়া যথেষ্ট কঠিন। তারইমধ্যে নিজে কবে সুযোগ পাবে, তা নিয়েও ভাবনাচিন্তা হয়। মানসিক দিক থেকে ঠিক জায়গায় থাকতে হবে। ইতিবাচক থাকতে হবে সবসময়।’

তারপর সঞ্জু আরও যোগ করেন, 'আজকাল মিডিয়া, সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচুর আলোচনা হয় যে সঞ্জু কার পরিবর্তে দলে ঢুকবে? ঋষভ পন্তের পরিবর্তে ঢুকবে নাকি কেএল রাহুলের পরিবর্তে দলে আসবে সঞ্জু? এইসব কথাবার্তা নিয়ে আপনার ভাবনাচিন্তাটা সহজ। আমার মনে করি, কেএল রাহুল হোক ঋষভ পন্ত - ওরা তো আমার দলের (ভারতীয়) দলের হয়েই খেলছে। আমি যদি নিজের সতীর্থদের সঙ্গেই প্রতিযোগিতার কথা ভাবি, তাহলে আমি আমার দেশকে হতাশ করছি। আমার নিজের ভারতীয় দলকে হতাশ করছি।'

বন্ধ করুন