বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > Ballon d'or: সপ্তমবার সেরার সেরা হয়েও খুশি নন লিওনেল মেসি
সপ্তম ব্যালন ডি'অর খেতাব হাতে লিওনেল মেসি। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)
সপ্তম ব্যালন ডি'অর খেতাব হাতে লিওনেল মেসি। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)

Ballon d'or: সপ্তমবার সেরার সেরা হয়েও খুশি নন লিওনেল মেসি

  • এ বছর মেসির থেকে ৩৩ ভোট কম পেয়ে ব্যালন ডি'অর তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে শেষ করেন রবার্ট লেওয়ানডোস্কি।

মায়াবী সন্ধ্যায় প্যারিসে সপ্তমবার ফ্রান্স ফুটবল সংস্থার দেওয়া ব্যালন ডি'অর পুরস্কার জিতে নিয়েছেন লিওনেল মেসি। রবার্ট লেওয়ানডোস্কি, জর্জিনহোরা কড়া চ্যালেঞ্জ জানালেও বার্সেলোনাকে কার্যত একা হাতে টানার পাশাপাশি নিজের প্রথম আন্তর্জাতিক ট্রফি হিসেবে এ বছরই কোপা আমেরিকা জয়ের সুবাদে আরও একবার সেরা ফুটবলার মনোনীত হয়েছেন আর্জেন্তাইন তারকা।

তবে ফ্রান্স ফুটবল সংস্থার দেওয়া সেরা ফুটবার মনোনীত হয়েও মেসির গলায় আক্ষেপের সুর শোনা গেল। অবশ্য তা কিন্তু নিজের জন্য নয়, বরং এবারে তাঁর সবথেকে কাছের প্রতিদ্বন্দ্বী লেওয়ানডোস্কির জন্যই। মেসির থেকে ৩৩ ভোট কম পেয়ে পুরস্কার তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে শেষ করেছেন লেওয়ানডোস্কি। তবে মেসির মতে গতবারে লেওয়ানডোস্কিই সেরা খেলোয়ড় ছিলেন এবং ফ্রান্স ফুটবল সংস্থার উচিত ২০২০ সালের ব্যালন ডি'অর দিয়ে পোলিশ স্ট্রাইকারকে পুরস্কৃত করা।

সেরা ফুটবলার মনোনীত হয়ে মঞ্চে বক্তব্য পেশ করার সময় মেসি বলেন, ‘আমি রবার্ট লেওয়ানডোস্কির নাম উল্লেখ করতে চাই। তোমার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করা সত্যিই গর্বের বিষয়। সবাই জানে এবং আমরা সকলেই মানি যে গত বছর তুমিই এই পুরস্কারের বিজেতা হতে। আমার মতে ফ্রান্স ফুটবলের তোমাকে ২০২০ সালে ব্যালন ডি'অর দিয়ে পুরস্কৃত করা উচিত এবং সেই পুরস্কার তোমার বাড়িতে শোভা বর্ধন করবে।’

২০২০ সালে লেওয়ানডোস্কিকেই সেরা ব্যালন ডি'অর জেতার সেরা দাবিদার মানা হচ্ছিল। ওই মরশুমে ব্যক্তিগতভাবে গোলের পর গোল, রেকর্ড পর রেকর্ড তো ভেঙেছেনই, পাশপাশি ৩৩ বছর বয়সী স্টাইকার তাঁর ক্লাব বায়ার্ন মিউনিখের সঙ্গে ট্রেবল জেতেন। তবে করোনার কারণে গতবারের ব্যালন ডি'অর অনুষ্ঠানটি বাতিল করতে হয়। সেই দিকেই ইঙ্গিত করে লেওয়ানডোস্কিকে প্রশংসায় ভরান মেসি। 

বন্ধ করুন