বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > ম্যাচের সেরার পুরস্কার পাওয়া উচিত স্টোকসের, ফাইনালের রাজা হয়ে বললেন কারান

ম্যাচের সেরার পুরস্কার পাওয়া উচিত স্টোকসের, ফাইনালের রাজা হয়ে বললেন কারান

স্যাম কারান (AAP Image via REUTERS)

এদিন ৪ ওভার বল করে ১২ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন তিনি। মহম্মদ রিজওয়ান, শান মাসুদ এবং মহম্মদ নওয়াজকে প্যাভিলিয়নে ফেরান তিনি। ফলে পাকিস্তান মাত্র ১৩৭ রান করতেই সমর্থ হয়।

শুভব্রত মুখার্জি: রবিবাসরীয় মেলবোর্নে এক টানটান উত্তেজনার ফাইনালের সাক্ষী থাকল ক্রিকেট বিশ্ব। সেই ফাইনালে পাঁচ উইকেটে পাকিস্তানকে হারিয়ে তাঁদের ইতিহাসে দ্বিতীয় টি-২০ বিশ্বকাপের শিরোপা জিতে নিল ইংল্যান্ড। মেলবোর্নের এই ফাইনালে এদিন তুলনামূলক কম স্কোর করেও তাঁদের বোলিং আক্রমণের উপর ভর করে অবিশ্বাস্য লড়াই লড়ল পাকিস্তান দল। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। ম্যাচে ইংল্যান্ডের হয়ে বল হাতে দুরন্ত পারফরম্যান্স করেছেন স্যাম কারেন। মাত্র ১২ রান দিয়ে নিয়েছেন তিন উইকেট। আর তাঁকেই ম্যাচ সেরা বেছে নেওয়া হয়েছে। তবে পুরস্কার নেওয়ার পরে তাঁর স্পষ্ট বক্তব্য পুরস্কারটা আমার নয় স্টোকসের (বেন) পাওয়া উচিত ছিল।

ম্যাচ সেরার পুরস্কার নেওয়ার পর স্যাম কারেন জানিয়েছেন 'আমি মনে করি না আমি এটা পাওয়ার যোগ্য (ম্যান অফ দি ম্যাচ পুরস্কার)। যেভাবে স্টোকসি ওই ইনিংসটা খেলল তাতে করে ওর এই পুরস্কারটা পাওয়া উচিত। আমরা এই মুহূর্তটা খুব উপভোগ করব। খুব স্পেশাল একটা মুহূর্ত। এখানকার স্কোয়ার বাউন্ডারিগুলো খুব বড়। সেই কারণে উইকেটটাকে হিট করে বল করতে পারলে সিমারদের সুবিধা দিয়েছে। বল সুইং করেছে দুই দিকে। আমি যেভাবে বল করি তাতে করে আমার স্লোয়ার বল দিয়েও পিচে জোরে আঘাত করার চেষ্টা করি। এতে করে ব্যাটসম্যানকে অনুমান করতে হয় আমি কি করছি। (আমরা) বিশ্বচ্যাম্পিয়ন কি দারুণ ব্যাপারটা।'

স্টোকস সম্বন্ধে বলতে গিয়ে স্যাম কারান মন্তব্য করেন 'লোকে ওকে নিয়ে প্রশ্ন করে। তবে প্রশ্ন করার কোনও অবকাশ ও তাঁদেরকে দেয়নি। আমাদের জন্য ও হচ্ছে সেরা।' ম‌্যাচ সেরা হওয়ার পাশাপাশি স্যাম কারেন টুর্নামেন্ট সেরাও নির্বাচিত হয়েছেন। নিয়েছেন ১৩টি উইকেট। ইকোনমি মাত্র ৬.৫০। সেই বিষয়ে বলতে গিয়ে তিনি জানিয়েছেন 'আমি সত্যি বলতে একটু হলেও ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। আমরা মুহূর্তটাকে খুব উপভোগ করতে চলেছি।' প্রসঙ্গত এদিন ৪ ওভার বল করে ১২ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন তিনি। মহম্মদ রিজওয়ান, শান মাসুদ এবং মহম্মদ নওয়াজকে প্যাভিলিয়নে ফেরান তিনি। ফলে পাকিস্তান মাত্র ১৩৭ রান করতেই সমর্থ হয়। বেন স্টোকসের অনবদ্য অপরাজিত ৫২ রানের ইনিংসে ভর করে এক ওভার বাকি থাকতেই পাঁচ উইকেট হাতে নিয়ে বিশ্ব চ‌্যাম্পিয়ন হয়ে যায় ইংল্যান্ড দল।

বন্ধ করুন