ভারতের কিংবদন্তী ক্রিকেটারকে লরিয়াস স্পোর্টিং মোমেন্ট ২০০০-২০২০ সম্মানে ভূষিত করা হল।
ভারতের কিংবদন্তী ক্রিকেটারকে লরিয়াস স্পোর্টিং মোমেন্ট ২০০০-২০২০ সম্মানে ভূষিত করা হল।

বিশ্বকাপ জয়কে কুর্নিশ, বিরল লরিয়াস পুরস্কারে সম্মানিত সচিন

বিশ্বকাপ জেতার পরে জয়ী দলকে নিয়ে সচিনের ভিকট্রি ল্যাপকেই গত দুই দশকের সেরা ক্রীড়া মুহূর্ত হিসেবে বেছে নিয়েছেন লরিয়াস পুরস্কারের নির্বাচকরা।

ক্রীড়াজগতের ইতিহাসে অন্যতম বড় সম্মানলাভ করলেন সচিন তেন্ডুলকর। সোমবার ভারতের কিংবদন্তী ক্রিকেটারকে লরিয়াস স্পোর্টিং মোমেন্ট ২০০০-২০২০ সম্মানে ভূষিত করা হল।

কিছু দিন আগে অস্ট্রেলিয়ায় দাবানলে ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যার্থে অনুষ্ঠিত বুশফায়ার ক্রিকেট ব্যাশ-এ ফের ব্যাট হাতে বাইশ গজে দেখা যায় সচিনকে। প্রথম বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে দর্শকদের মনোরঞ্জনও করেন লিটল মাস্টার।

লরিয়াস স্পোর্টিং মোমেন্ট সম্মানের জন্য বিবেচিত হয়েছে গত দুই দশকের সেরা ক্রীড়া মুহূর্ত, যা সংহতি নির্মাণের ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেছে। সেই বিচারে ২০১১ সালে ক্রিকেট বিশ্বকাপ জয়ী সচিনের সাফল্যকে গুরুত্ব দেওয়া তাঁর সেই কৃতিত্বের জেরে উচ্ছ্বাসে ভেসে যায় আপামর ভারত। কাপ জেতার পরে জয়ী দলকে নিয়ে সচিনের ভিকট্রি ল্যাপকেই গত দুই দশকের সেরা ক্রীড়া মুহূর্ত হিসেবে বেছে নিয়েছেন লরিয়াস পুরস্কারের নির্বাচকরা।

বিশ্বকাপ জয়ের সেই স্মৃতি রোমন্থন করে এ দিন সচিন বলেন, ‘অবিশ্বাস্য সেই ঘটনা। বিশ্বকাপ জয়ের অনুভূতি কথায় প্রকাশ করা অসম্ভব। এমন কোনও অনুষ্ঠান হতে পারে, যেখানে মিশ্র মত থাকবে না? সে এক অতি বিরল মুহূর্ত, যখন গোটা দেশ একযোগে উদযাপনে মেতে ওঠে। এবং এর থেকেই বোঝা যায় খেলাধুলোর শক্তি, যা আমাদের জীবনে জাদু সৃষ্টি করতে পারে। এখনও বুঝতে পারি, সেই অনুভূতি আমার সঙ্গেই আছে।’

বিরল এই কৃতিত্বের স্মারক গ্রহণ করার পরে মঞ্চে প্রাক্তন অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট অধিনায়ক স্টিভ ওয়াহ এবং কিংবদন্তী টেনিস নক্ষত্র বরিস বেকারের দু’টি প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন তেন্ডুলকর।

নক্ষত্রখচিত সমাবেশে ভক্তদের ধন্যবাদ জানিয়ে অনুপ্রেরণামূলক ভাষণ দেন সচিন। তাঁর কথায় উদ্বুদ্ধ হয়েছেন নবীন প্রজন্মের ক্রীড়াবিদরা।

অনুষ্ঠানে যাওয়ার আগে সোমবার তাঁর সম্মানলাভের খবর প্রকাশ করে টুইটারে ভক্তদের ধন্যবাদ জানান সচিন। সেই সঙ্গে এই সম্মান দেশকে উত্সর্গ করেন ভারতীয় ক্রিকেটের উজ্জ্বলতম নক্ষত্র।

বন্ধ করুন