বাংলা নিউজ > ময়দান > 'কাশ্মীর দখলের পর' ভারতে জয় করব, ভাইরাল শোয়েবের বিতর্কিত মন্তব্যের ভিডিয়ো
শোয়েব আখতার। (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)
শোয়েব আখতার। (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)

'কাশ্মীর দখলের পর' ভারতে জয় করব, ভাইরাল শোয়েবের বিতর্কিত মন্তব্যের ভিডিয়ো

  • এক নেটিজেন বলেন, ‘প্রথমে বিশ্বকাপে তো হারিয়ে দেখাও।’

কয়েকদিন আগে ভারতীয় দলকে খোঁচা দিয়েছিলেন। সেই রেশ কাটতে না কাটতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রাক্তন পাকিস্তানি বোলার শোয়েব আখতারের একটি পুরনো ভিডিয়ো ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। তাতে 'গাজওয়া-ই হিন্দ' প্রসঙ্গে কথা বলার সময় শোয়েব দাবি করেন, কাশ্মীর দখল আরও আগে এগিয়ে যাওয়া হবে। তা নিয়ে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েছেন প্রাক্তন পাকিস্তানি তারকা। 

সম্প্রতি টুইটারে শোয়েবের একটি সাক্ষাৎকারের ৩৩ সেকেন্ডের অংশ ছড়িয়ে পড়েছে। তাতে তাঁকে বলতে শোনা যায়, 'আমাদের (বইয়ে) লেখা হয়েছে যে গাজওয়া-ই হিন্দ একদিন বাস্তবায়িত হবে। দু'বার রক্তে রাঙা হয়ে যাবে অ্যাটক নদীর জল। আফগানিস্তান থেকে অ্যাটকে সেনা আসবে। আমাদের বইয়ে এরকম ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়েছে। তারপর খোরাসানে জমায়েত করবেন সারা বিশ্বের মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষরা। পুরনো দিনের খোরাসান লাহোর পর্যন্ত ছিল। সেই বাহিনী কাশ্মীর দখল করবে। তারপর ইনশাল্লাহ, আমরা আরও এগিয়ে যাব..।' সেই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি ‘হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা’।

সেই ভিডিয়োয় স্বভাবতই তুমুল ক্ষিপ্ত হয়েছেন ভারতীয়রা। শোয়েবকে কড়া জবাব দিয়েছেন নেটিজেনরা। এক নেটিজেন বলেন, ‘তাহলে শোয়েব আখতার মনে করেন যে পাকিস্তান প্রথমে কাশ্মীর দখল করবে এবং গাজওয়া-ই হিন্দ মোতাবেক ভারত জয় করবে। প্রথমে বিশ্বকাপে তো হারিয়ে দেখাও। আর ১৬ ডিসেম্বর কী কারণে ভারতে উদযাপন করা হয়, সেটাও মনে রাখ।’

অপর একজন বলেন, 'এই লোকগুলো ভারতকে ধ্বংস করার স্বপ্নে এতটাই বিভোর যে নিজেরা বিশ্বের অন্যতম অনুন্নত এবং গরিব দেশে পরিণত হয়েছে।'

উল্লেখ্য, 'গাজওয়া-ই হিন্দ' হল ভারত দখলের জন্য ধর্মযুদ্ধ। যা বিভিন্ন ইসলামিক রচনায় উল্লেখ করা হয়েছে। অনেক উর্দু বিশেষজ্ঞ দাবি করেন, হিন্দুদের সঙ্গে যুদ্ধের পর ভারতীয় উপমহাদেশ দখল করবে মুসলিম বাহিনী। যদিও অধিকাংশ বিশেষজ্ঞের মতে, সেই তত্ত্ব ভুল এবং তাতে বিশ্বাসযোগ্যতার লেশমাত্র নেই। 

বন্ধ করুন