বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > Devuthani Ekadashi: দেবোত্থানী একাদশীতে কী করণীয় এবং উপবাস সংক্রান্ত সমস্ত নিয়ম

Devuthani Ekadashi: দেবোত্থানী একাদশীতে কী করণীয় এবং উপবাস সংক্রান্ত সমস্ত নিয়ম

এবার এই একাদশী ২০২২ সালের ৪ নভেম্বর।  

Devuthani Ekadashi: দেবোত্থানী কবে পড়েছে? জেনে নিন দেবোত্থানী একাদশীর উপবাসের দিন কী করা উচিত, আর কী নয়।

দেবোত্থানী একাদশীকে সমস্ত একাদশীর মধ্যে সবচেয়ে শুভ বলে মনে করা হয়। এই একাদশী দেবোত্তন একাদশী, দেব প্রবোধিনী একাদশী এবং দিথাবন একাদশী নামেও পরিচিত।

দেবোত্থানী একাদশীতে কি করবেন আর কি করবেন না?

এবার এই একাদশী ২০২২ সালের ৪ নভেম্বর। এই দিনে ভগবান বিষ্ণু ৪ মাস ঘুমের পর জেগে ওঠেন। এমতাবস্থায়, বিশ্বপালনকর্তা জেগে উঠলেই চার মাস বন্ধ থাকা সমস্ত শুভকাজ আবার শুরু হয়। সকল একাদশীর মধ্যে শ্রেষ্ঠ বলে বিবেচিত এই একাদশীর উপবাস করলে ও ব্রত পালন করলে স্বর্গ ও বৈকুণ্ঠ লাভ হয় বলে ধর্মীয় বিশ্বাস। তবে এই দিনে কিছু বিষয়ের যত্ন নেওয়াও খুব জরুরি। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক দেবোত্থানী একাদশীর নিয়ম কী এবং এই দিনে কী করা উচিত আর কী নয়।

দেবোত্থানী একাদশীর উপবাসে কি করবেন?

এই দিনে সূর্যোদয়ের আগে ঘুম থেকে উঠে স্নান করে উপবাসের ব্রত নিন।

বিশ্বাস অনুসারে, দেবোত্থানী একাদশীর দিন ভগবান বিষ্ণুর মূর্তির সামনে একটি প্রদীপ জ্বালাতে হবে।

দেবোত্থানী একাদশীর দিনে ভগবান বিষ্ণুর নাম জপ করা উচিত।

এই দিনে নির্জলা উপবাস পালন করতে হবে।

এছাড়াও, দেবোত্থানী একাদশীর দিন গরুকে অবশ্যই খাবার দিতে হবে।

দেবোত্থানী একাদশীতে কি করবেন না?

হিন্দু শাস্ত্র অনুসারে একাদশীতে ভাত খাওয়া উচিত নয়।

দেবোত্থানী একাদশীর দিন অন্য কারো দেওয়া খাবার খাওয়া উচিত নয়।

এছাড়াও, একাদশীতে, কারও প্রতি মনে বিদ্বেষ রাখা উচিত নয়।

বাঁধাকপি, পালংশাক, শালগম ইত্যাদিও দেবোত্থানী একাদশীতে খাওয়া উচিত নয়।

দেবোত্থানী একাদশীর উপবাস পালনকারী ব্যক্তির বিছানায় ঘুমানো উচিত নয়।

একাদশীর দিন চুল ও নখ কাটা উচিত নয়।

একাদশীর দিনে সংযত ও সরল জীবনযাপনের চেষ্টা করা উচিত।

এই দিনে ভুল করেও কটু কথা বলা উচিত নয়।

 

বন্ধ করুন