বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > রাজ্যের প্রকল্প পকেট ভারি করার জন্য তৈরি,কমিউনিটি কিচেনের ৫০০ দিনে খোঁচা বিমানের
কমিউনিটি কিচেনের ৫০০ দিন পূর্তিতে মিছিলে বিমান বসু
কমিউনিটি কিচেনের ৫০০ দিন পূর্তিতে মিছিলে বিমান বসু

রাজ্যের প্রকল্প পকেট ভারি করার জন্য তৈরি,কমিউনিটি কিচেনের ৫০০ দিনে খোঁচা বিমানের

  • দল সূত্রে খবর, করোনাকালে লকডাউন চলাকালীন শিবপুরের পিএম বস্তিতে শুরু হয়েছিল এই কমিউনিটি কিচেন।

প্রিয়নাথ মান্না বস্তি কমিউনিটি কিচেন। দীর্ঘ ৫০০ দিন ধরে চলছে এই রান্নাঘর। হাওড়ার শ্রমজীবী ক্যান্টিনের ৫০০ দিন উদযাপন অনুষ্ঠানে সোমবার উপস্থিত ছিলেন সিপিএম নেতা বিমান বসু ও দীপক দাশগুপ্ত। দল সূত্রে খবর, করোনাকালে লকডাউন চলাকালীন শিবপুরের পিএম বস্তিতে শুরু হয়েছিল এই কমিউনিটি কিচেন। আর্থিক দিক থেকে পিছিয়ে পড়া বহু মানুষের মুখে খাবার তুলে দেওয়া হয় এই কিচেন থেকে।

বিমান বসু বলেন, যাঁরা চালাচ্ছেন তাঁদের নানা সমস্যার মধ্যে পড়তে হচ্ছে। তবুও তাঁরা এটি চালাচ্ছেন কারণ তাঁদের মানুষের প্রতি দরদ আছে। তাঁরা নিজেদের পকেট ভারি করার জন্য চালাচ্ছেন না। রাজ্যে যখন যে প্রকল্প শুরু হয় সেটা পকেট ভারি করার জন্য তৈরি হয়। এই প্রকল্পে কারোর পকেট ভারি হচ্ছে না। এটা বলতে পারি। বাধার পাহাড় ডিঙিয়ে তো মানুষের স্বার্থে কাজ করতে হয়। বাধার পাহাড় ডিঙোনর জন্য তাঁরা শপথ গ্রহণ করছেন। 

অন্যদিকে নির্বাচন প্রসঙ্গে বিমান বসু বলেন, নির্বাচনটা করা উচিৎ জীবিত মানুষদের ভোটে। এলাকায় যাঁরা বসবাস করেন তাদের ভোটে করা উচিৎ। কিন্তু এমনও জানি বিদেশে থাকে এমন মানুষের ভোটও পড়ে গিয়েছে। আমি রিপোর্ট শুনেছি মৃতদের ভোটও পড়ে গিয়েছে। মৃত ব্যক্তি ভোট দেন কী করে? আগে ওই বিষয়টা নিশ্চিত করা দরকার। আমি ভোট দিলাম। হাত ধুলাম আর কালি উঠে গেল। তার মানে টিএমসির বাছাই করা লোক অন্তত ২০টা করে ভোট দিতে পারে এমন ব্যবস্থা করা হয়েছে। না হলে ৯০ শতাংশের উপর ভোট পড়তে পারে? 

বন্ধ করুন