বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পেটের দায়ে গিয়েছিলেন কাঁকড়া ধরতে, ঝাঁপিয়ে পড়ল রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার
সুন্দরবনে বাঘের থাবায় মৃত্যু হল মৎসজীবীর। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
সুন্দরবনে বাঘের থাবায় মৃত্যু হল মৎসজীবীর। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

পেটের দায়ে গিয়েছিলেন কাঁকড়া ধরতে, ঝাঁপিয়ে পড়ল রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার

পুলিশ দেহটিকে ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে।

‌পেটের দায়ে সুন্দরবনের জঙ্গলে গিয়েছিলেন শ্রীনিবাস। সেটাই হল তাঁর কাল। পিছন থেকে আচমকাই তাঁর উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার। বাড়ি আর ফেরা হল না শ্রীনিবাসের। গোটা ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

জানা যায়, গত সোমবার সকালে কুলতলির মোহনপুরের বাসিন্দা শ্রীনিবাস মণ্ডল কাঁকড়া ধরতে বেলিফিলির জঙ্গলে গিয়েছিলেন। আগে সুন্দরবনের ওই সব জঙ্গলে প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে গিয়েছিলেন শ্রীনিবাস। তখন কিছু হয়নি। এবারে হল ছন্দপতন। সোমবার দুপুরে বেলিফিলির জঙ্গলে শ্রীনিবাস যখন যান, তখন পিছন থেকে তাঁর ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে একটি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার। মুহূর্তের মধ্যে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। সঙ্গীসাথীরা তাঁকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। মৃত্যু হয় শ্রীনিবাসের। জানা গিয়েছে, ৫২ বছরের শ্রীনিবাস মৎস্যজীবী ছিলেন। ছোটোবেলা থেকেই অন্যান্য মৎস্যজীবীদের সঙ্গে মাছ ধরতে যেতেন তিনি। আগেও বহুবার প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে মাছ ধরতে গিয়েছেন।

গত মঙ্গলবার অন্যান্য মৎস্যজীবীরা শ্রীনিবাসের দেহকে নিয়ে এলে পুলিশ দেহটিকে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। তাঁর সঙ্গে যে সব মৎস্যজীবীরা গিয়েছিলেন, তাঁদের কাছে বৈধ কাগজপত্র রয়েছে কিনা, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। গোটা ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

বন্ধ করুন