বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ভাটপাড়ায় জনবহুল বাজারের কাছে লক করা পরিত্যক্ত গাড়ি, ভেতরে 'বোমা' রাখল কারা?
বাজারের কাছেই পরিত্যক্ত গাড়ি (নিজস্ব চিত্র)
বাজারের কাছেই পরিত্যক্ত গাড়ি (নিজস্ব চিত্র)

ভাটপাড়ায় জনবহুল বাজারের কাছে লক করা পরিত্যক্ত গাড়ি, ভেতরে 'বোমা' রাখল কারা?

  • কেউ যাতে গাড়ির কাছাকাছি আসতে না পারে সেব্যাপারে পুলিশ কড়া নজরদারি শুরু করে।

গত কয়েকবছর ধরেই কার্যত পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়েছিল গাড়িটি। সেই গাড়ির ভেতরেই বোমা রয়েছে বলে এলাকায় খবর ছড়িয়ে পড়ে। এর জেরে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়ায় এলাকায়। উত্তর ২৪ পরগনার ভাটাপাড়া থানার স্থির পাড়ার বুড়ি বটতলা এলাকার ঘটনা। বাসিন্দাদের দাবি ওই গাড়িটিতে বোমা রয়েছে বলে পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পায়। এরপরই মঙ্গলবার রাত থেকে এই গাড়িটি ঘিরে ফেলে পুলিশ। বুধবার সকালেও গাড়ির চারপাশে পুলিশের পাহারা বসানো হয়। কেউ যাতে গাড়ির কাছাকাছি আসতে না পারে সেব্যাপারে পুলিশ কড়া নজরদারি শুরু করে। সূত্রের খবর বোম্ব স্কোয়াড এসে বোমাগুলিকে উদ্ধার করে। তিনটি বোমা গাড়ির মধ্যে রাখা ছিল বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে।

গত কয়েকবছর ধরেই কার্যত পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়েছিল গাড়িটি। সেই গাড়ির ভেতরেই বোমা রয়েছে বলে এলাকায় খবর ছড়িয়ে পড়ে। এর জেরে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়ায় এলাকায়। উত্তর ২৪ পরগনার ভাটাপাড়া থানার স্থির পাড়ার বুড়ি বটতলা এলাকার ঘটনা। বাসিন্দাদের দাবি ওই গাড়িটিতে বোমা রয়েছে বলে পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পায়। এরপরই মঙ্গলবার রাত থেকে এই গাড়িটি ঘিরে ফেলে পুলিশ। বুধবার সকালেও গাড়ির চারপাশে পুলিশের পাহারা বসানো হয়। কেউ যাতে গাড়ির কাছাকাছি আসতে না পারে সেব্যাপারে পুলিশ কড়া নজরদারি শুরু করে। সূত্রের খবর বোম্ব স্কোয়াড এসে বোমাগুলিকে উদ্ধার করে। তিনটি বোমা গাড়ির মধ্যে রাখা ছিল বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে।

|#+|

কিন্তু এখানেই প্রশ্ন উঠেছে কারা এই জাইলো গাড়ির মধ্যে বোমা রেখেছিল? তাছাড়া জনবহুল জায়গায় একেবারে বাজারের কাছেই গাড়িটি প্রায় বছর তিনেক ধরে পড়ে রয়েছে। গাড়ির চারপাশে ঝোপঝাড়ও হয়ে গিয়েছে। তার ভেতর বোমা রাখল কারা? বাসিন্দারা বলেন, এর আগেও এলাকায় বোমাবাজি হয়েছে। এরপর গাড়ির ভেতর বোমা রাখার খবরে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়ায় এলাকায়। যে কোনও সময়ে অসাবধানে বোমা ফেটে বড় বিপদ হতে পারত। তবে পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, সম্ভবত দুষ্কৃতীরা গাড়ির মধ্যে বোমা রেখে দরজা লক করে চলে গিয়েছিল। এলাকায় আতঙ্ক ছড়ানোর জন্যই এই কাজ করা হয়েছে। তবে গোটা ঘটনায় নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে ।

 

বন্ধ করুন