বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Darjeeling in Winter: কনকনে ঠান্ডায় কি দেখা গেল ঝকঝকে কাঞ্চনকে? দার্জিলিং জমজমাট

Darjeeling in Winter: কনকনে ঠান্ডায় কি দেখা গেল ঝকঝকে কাঞ্চনকে? দার্জিলিং জমজমাট

দার্জিলিংয়ের মোহময়ী রূপ টানে অনেককেই। ফাইল ছবি

কলকাতাতেই প্রবল ঠান্ডা। তবে দার্জিলিংয়ে না জানি কী হবে? এনজেপিতে নামার পরেই প্রথমেই এই কথাটা মনে আসে অনেকের। তবে শীতে কেমন আছে দার্জিলিং? দেখা যাচ্ছে কাঞ্চনজঙ্ঘকে। দেখে নেওয়া যাক এবার।

এমন হাড়কাঁপানো ঠান্ডার মধ্যে ঝকঝকে কাঞ্চন দর্শন শেষ কবে দেখেছেন পর্যটকরা তা অনেকেই হাতে গুনে বলছেন। কলকাতাতেই শুক্রবার একেবারে কনকনে ঠান্ডা। আর সেই নিরিখে দার্জিলিংয়ে একেবারে হাড়কাঁপানো ঠান্ডা। সূত্রের খবর, এদিন দার্জিলিংয়ের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৪.৮ ডিগ্রি। অন্যদিকে কিছু জায়গায় তাপমাত্রা ৩ ডিগ্রিতে নেমে যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। আর বছরের প্রথমে এই ঠান্ডা একেবারে চুটিয়ে উপভোগ করছেন পর্যটকরা।

দার্জিলিংয়ের মানবাড়ি এলাকার জাকির হোসেন রোডের বাসিন্দা গৌতম শ্রেষ্ঠা হিন্দুস্তান টাইমস বাংলাকে জানিয়েছেন, প্রচন্ড ঠান্ডা দার্জিলিংয়ে। কিন্তু রোদ উঠেছিল এদিন। আর কাঞ্চনজঙ্ঘাও দেখা যাচ্ছে। অনেকে ট্রেকিংয়েও যাচ্ছেন। প্রচুর পর্যটক এসেছেন। তবে অনেকে এখন অফবিট ডেস্টিনেশনে যেতে পছন্দ করেন।

তবে দার্জিলিং মানেই কাঞ্চনজঙ্ঘা। দুচোখে ভরে দেখা সেই বরফের মুকুট পরা পাহাড় । আর সূর্যের আলো পড়ে একেবারে সোনার রঙ ধারণ করে সেই পাহাড়। তবে কিছুদিন আগেও কাঞ্চনজঙ্ঘা ঢেকে ছিল কুয়াশায়। আর কাঞ্চনজঙ্ঘা ঢেকে থাকলে মন খারাপ হয়ে যায় পর্যটকদের। তবে দিন দুয়েক ধরেই পরিস্থিতি একেবারে অন্যরকম। প্রবল ঠান্ডার মধ্যে ঝকঝকে থাকছে আকাশ। আর ঝকঝকে আকাশ মানেই তো কাঞ্চন দর্শন। বেলা বাড়লেই সূর্যের দেখাও মিলছে। ম্যালের আকাশে একফালি রোদ যেন ছড়িয়ে পড়ছে পর্যটকদের মুখেও।

তবে দার্জিলিংকেন্দ্রিক বেড়ানোর প্ল্যানিংটা কয়েকবছর ধরেই কিছুটা বদলে যাচ্ছিল। তবে এবার একেবারেই অন্যরকম হয়ে গিয়েছে। দার্জিলিংয়ের ভিড় তো আছেই। ম্যালে না এলে দার্জিলিং দর্শন কি সত্যিই সম্পূর্ণ হয়? তবে পাহাড়ের বিভিন্ন নির্জন জায়গায় হোমস্টের প্রতি এবার যেন অতিরিক্ত আকর্ষণ পর্যটকদের। এনজেপি থেকে গাড়ি নিয়ে সোজা দার্জিলিংয়ে না গিয়ে অনেকেই চলে আসছেন হোম স্টেগুলিতে। ঘরোয়া আতিথেয়তায় কাটিয়ে দেওয়া কয়েকটা দিন।

আসলে যাঁরা নির্জনতা ভালোবাসেন তাঁদের অনেকেই এখন খোঁজ করেন দার্জিলিংয়ের অফবিট ডেস্টিনেশন। প্রতিটি ঋতূতেই অন্যরকম রূপ নেয় মোহময়ী দার্জিলিং। অনেকে প্রবল ঠান্ডায় দার্জিলিং যেতে দুবার ভাবেন। তবে ঠান্ডায় দার্জিলিংয়ের অন্য রূপ। তবে এই সময়টাতে প্রবল কুয়াশার জন্য গাড়ি চালানোর ক্ষেত্রে কিছুটা সমস্যা থেকেই যায়। এর সঙ্গে ঝুঁকিটাও থাকে পাহাড়ি রাস্তায়। তবে এক্ষেত্রে গাড়ি অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে চালানো দরকার। আর একবার দার্জিলিংয়ে পৌঁছে যেতে পারলে নো চিন্তা। দুচোখ ভরে দেখুন শীতের দার্জিলিং। এ এক অন্য রূপ। তুলনাহীন।

 

বন্ধ করুন