বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দেরিতে পৌঁছাল নির্দেশিকা, সকালে আসানসোল ডিভিশনে চলল লোকাল ট্রেন
দেরিতে পৌঁছাল নির্দেশিকা, সকালে আসানসোল ডিভিশনে চলল লোকাল ট্রেন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)
দেরিতে পৌঁছাল নির্দেশিকা, সকালে আসানসোল ডিভিশনে চলল লোকাল ট্রেন। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)

দেরিতে পৌঁছাল নির্দেশিকা, সকালে আসানসোল ডিভিশনে চলল লোকাল ট্রেন

  • রেল সূত্রে খবর, সকাল ১০টা ২০ মিনিটের পর আসানসোল–বর্ধমান রুটে নতুন করে কোনও ট্রেন চলেনি।

নির্দেশিকা ঠিকমতো না আসায় বৃহস্পতিবার সকালে আসানসোল ডিভিশনে লোকাল ট্রেন চললেও পরে তা বন্ধ করে দেওয়া হয়। রেল মন্ত্রক সূত্রে এই কথাই জানানো হয়েছে। রাজ্যে করোনার সংক্রমণের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় গতকালই রাজ্যে সব লোকাল ট্রেন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সব লোকাল ট্রেন বন্ধ রাখার কথা থাকলেও আসানসোল ডিভিশনে ভোর থেকে ট্রেন চলাচলের খবর পাওয়া যায়। তবে সাড়ে ১০টার পর থেকে অবশ্য ওই ডিভিশনে আর কোনও ট্রেন চলেনি।

রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, ভোর ৫টা ২৫ মিনিট, সকাল ৭টা ৪০ মিনিট ও ১০টা ২০ মিনিটে তিনটি লোকাল ট্রেন বর্ধমানের উদ্দেশে রওনা দেয়। অন্যদিকে দুটি লোকাল ট্রেন বর্ধমান থেকে ফিরেও এসেছে। রেল কর্তাদের মতে, আসানসোল ডিভিশন ঝাড়খণ্ড, বিহার ও পশ্চিমবঙ্গের একাংশ নিয়ে গঠিত। ফলে কোনও দিকের ট্রেন বন্ধ থাকবে আর কোনও দিকের ট্রেন চালু থাকবে সে বিষয়ে বিহার, ঝাড়খণ্ডের সঙ্গে আলোচনারও প্রয়োজন। ফলে সিদ্ধান্ত নিয়ে কিছুটা সময় লাগা স্বাভাবিক। রেল সূত্রে খবর, সকাল ১০টা ২০ মিনিটের পর আসানসোল–বর্ধমান রুটে নতুন করে কোনও ট্রেন চলেনি।

উল্লেখ্য, বুধবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লোকাল ট্রেন বন্ধের কথা ঘোষণা করার পর রাজ্য সরকারের তরফে বিবৃতি জারি করে জানানো হয়েছিল, ১৪ দিন লোকাল ট্রেন বন্ধ থাকবে।

বন্ধ করুন