বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Katwa: হাসপাতালে মাছের বদলে রোগীদের দেওয়া হচ্ছে পচা ডিম! আইনি ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি
কাটোয়া মহকুমা হাসপাতাল। ফাইল ছবি।

Katwa: হাসপাতালে মাছের বদলে রোগীদের দেওয়া হচ্ছে পচা ডিম! আইনি ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি

  • হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, যে ঠিকাদার সংস্থাকে রান্নার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল তাদের জানানো হয়েছিল যে প্রতিদিন দুপুরে রোগীদের মাছ দিতে হবে। কিন্তু, তার পরিবর্তে কখনও ভাঙা আবার কখনও পচা ডিম দেওয়া হচ্ছে রোগীদের।

কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালে রোগীদের নিম্নমানের খাবার দেওয়ার অভিযোগ বেশ কয়েকদিন ধরেই আসছিল। অবশেষে হাসপাতাল পরিদর্শন করে হাতেনাতে খারাপ খাবার ধরলেন বিধায়ক, মহকুমা শাসক এবং হাসপাতালের সুপার। এই অবস্থায় ঠিকাদার সংস্থার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ, মাছ দেওয়ার কথা থাকলেও রোগীদের ডিম দেওয়া হচ্ছে, তাও আবার অনেক ক্ষেত্রে দেওয়া হচ্ছে পচা ডিম। এই অবস্থায় ঠিকাদার সংস্থাকে লিখিত বয়ান জমা দিতে বলেছেন মহকুমা শাসক।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, যে ঠিকাদার সংস্থাকে রান্নার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল তাদের জানানো হয়েছিল যে প্রতিদিন দুপুরে রোগীদের মাছ দিতে হবে। কিন্তু, তার পরিবর্তে কখনও ভাঙা আবার কখনও পচা ডিম দেওয়া হচ্ছে রোগীদের। এই সমস্ত ডিম একেবারেই স্বাস্থ্যসম্মত নয় এবং খাবার খুবই নিম্নমানের বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের সুপার সৌভিক আলম। তিনি বলেন, ‘রোগীদের নিম্নমানের খাবার দেওয়ার অভিযোগে শুনতে পাচ্ছিলাম। তবে হঠাৎ করে ক্যান্টিন ভিজিট করতেই আমরা দেখতে পাই রোগীদের পচা ডিম দেওয়া হচ্ছে। এইসব খেলে রোগীরা অসুস্থ হতে পারেন।’ এদিকে, দায়িত্বপ্রাপ্ত ঠিকাদার শিবুপ্রসাদ বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেছেন, বাজারে মাছ না মেলায় রোগীদের ডিম দেওয়া হচ্ছে। অনেক ক্ষেত্রেই তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে ডিম ভেঙে যায় তবে সেগুলি পচা নয়। রোগীদের ভালো খাবার দেওয়া হচ্ছে ।’

যদিও ঠিকাদার মিথ্যা কথা বলছেন বলেই জানিয়েছেন কাটোয়ার তৃণমূল বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘ঠিকাদারের কথা শুনে মনে হচ্ছে তিনি মিথ্যা বলছেন। কাটোয়ার বাজারে প্রচুর মাছ পাওয়া যায়। ওনাকে লিখিত জানাতে বলা হয়েছে কেন মাছ দেওয়া হচ্ছে না।’ কাটোয়ার মহকুমা শাসক জামেল ফতেমা জেবা জানান, ‘এ নিয়ে আমরা রোগীকল্যাণ সমিতির বৈঠকে আলোচনা করব। রোগীদের ভালো খাবার দেওয়ার জন্য দ্রুত ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।’

বন্ধ করুন