বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > East Burdwan: ঘুমে পুলিশের গাড়ির চালকের চোখ লেগে গেলেই বেজে উঠবে অ্যালার্ম, দুর্ঘটনা রুখতে সেফটি ডিভাইস
এই যন্ত্রটি থেকে বাজবে অ্যালার্ম। নিজস্ব ছবি

East Burdwan: ঘুমে পুলিশের গাড়ির চালকের চোখ লেগে গেলেই বেজে উঠবে অ্যালার্ম, দুর্ঘটনা রুখতে সেফটি ডিভাইস

  • পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, পুলিশের গাড়িতে বসানো হয়েছে এই বিশেষ যন্ত্র। যা চালকের চোখের উপর নজর রাখবে। গাড়ি চালকের চোখের পাতা তিন সেকেন্ডের বেশি বন্ধ থাকলে অ্যালার্ম বেজে উঠবে গাড়িতে। পাশাপাশি, কন্ট্রোল রুম ও পুলিশের শীর্ষকর্তাদের মোবাইলেও যাবে সতর্কবার্তা।

দিন রাত টানা গাড়ি চালানোর ফলে ক্লান্তিতে অনেক সময় ঘুমে চালকদের চোখ লেগে যায়। যা বড়সড় দুর্ঘটনার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। বিশেষ করে পুলিশের গাড়ির চালকদের টানা ডিউটি করতে হয়। এর ফলে অনেক সময় তারা গাড়ি চালাতে চালাতেই ঘুমে আচ্ছন্ন হয়ে পড়েন। এই সমস্যার সমাধানের জন্য বিশেষ যন্ত্র ব্যবহার করতে চলেছে পূর্ব বর্ধমান জেলার পুলিশ। চালক ঘুমে আচ্ছন্ন হয়ে পড়লেই বেজে উঠবে অ্যালার্ম। যা শুধু পশ্চিমবঙ্গে নয়, দেশের মধ্যে সম্ভবত প্রথম বলেই দাবি পূর্ব বর্ধমান জেলার পুলিশ সুপার কামনাশিস সেনের দাবি।

পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, পুলিশের গাড়িতে বসানো হয়েছে এই বিশেষ যন্ত্র। যা চালকের চোখের উপর নজর রাখবে। গাড়ি চালকের চোখের পাতা তিন সেকেন্ডের বেশি বন্ধ থাকলে অ্যালার্ম বেজে উঠবে গাড়িতে। পাশাপাশি, কন্ট্রোল রুম ও পুলিশের শীর্ষকর্তাদের মোবাইলেও যাবে সতর্কবার্তা। চালকের ঘুম না ভাঙলে ফোন করেও পুলিশ কর্তারা সজাগ করে দিতে পারবে গাড়ির চালককে। জানা গিয়েছে, একটি ডিভাইসের দাম পড়েছে প্রায় ৫০ হাজার টাকা।

এ প্রসঙ্গে জেলা পুলিশ সুপার কামনাশিস সেন বলেন, এই সেফটি ডিভাইসটি আপাতত পরীক্ষামূলকভাবে দুটি গাড়িতে লাগানো হয়েছে। ধাপে ধাপে জেলা পুলিশের বেশিরভাগ গাড়িতেই এই ডিভাইসগুলি ব্যবহার করা হবে। এই সেফটি ইকুয়েন্টমেন্ট ব্যবহারের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে পুলিশ কর্মীদের নিরাপত্তার কথা ভেবেই। এর ফলে দুর্ঘটনা রোখা সম্ভব হবে। স্বাভাবিকভাবেই খুশি পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশের পুলিশ কর্মীরা।

বন্ধ করুন