বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Mamata Banerjee: ফের বিনপুরে মাওবাদী পোস্টার! পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে ঝাড়গ্রামে যাবেন CM
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি সৌজন্যে পিটিআই। (HT_PRINT)
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি সৌজন্যে পিটিআই। (HT_PRINT)

Mamata Banerjee: ফের বিনপুরে মাওবাদী পোস্টার! পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে ঝাড়গ্রামে যাবেন CM

  • ঝাড়গ্রামের জেলাশাসক জয়সি দাশগুপ্ত এবং পুলিশ সুপার বিশ্বজিৎ ঘোষের কাছে মাওবাদী পরিস্থিতির বিষয়ে জানতে চেয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে তাদের উত্তর মুখ্যমন্ত্রীকে সন্তুষ্ট করতে পারেনি।

সম্প্রতি ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়ায় একের পর এক মাওবাদী পোস্টারে আতঙ্ক বেড়েছে। আজ সকালে ফের মাওবাদী পোস্টার উদ্ধার হয়েছে ঝাড়গ্রাম জেলার বিনপুর থানার জঙ্গলমহল এলাকায়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে নতুন করে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। পোস্টারে লেখা রয়েছে, ‘ন্যায়বিচার চাই।’ ইতিমধ্যেই মাওবাদী আতঙ্কে হাই এলার্ট জারি হয়েছে জঙ্গলমহলে। এই পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই ঝাড়গ্রাম সফরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

গতকাল নবান্নে প্রশাসনিক বৈঠকে ঝাড়গ্রামের জেলাশাসক জয়সি দাশগুপ্ত এবং পুলিশ সুপার বিশ্বজিৎ ঘোষের কাছে মাওবাদী পরিস্থিতির বিষয়ে জানতে চেয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে তাদের উত্তর মুখ্যমন্ত্রীকে সন্তুষ্ট করতে পারেনি। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে মুখ্যমন্ত্রী গোয়েন্দাদের আরও বেশি করে তথ্য সংগ্রহ করার নির্দেশ দেওয়ার পাশাপাশি আত্মসমর্পণকারী মাওবাদীরা সরকারি সুবিধা পাচ্ছে কিনা সে বিষয়টিও খতিয়ে দেখতে বলেছেন। একইসঙ্গে, ঝাড়খণ্ড সীমানা এলাকায় বাড়তি নজরদারির ব্যবস্থা করতে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। মাওবাদী পোস্টারের সত্যতা নিয়ে ঝাড়গাম জেলা প্রশাসনের কাছে মুখ্যমন্ত্রী জানতে চাইলে উত্তর জেলা প্রশাসন জানান, ‘আমরা এখনও কোনও এভিডেন্স পাইনি যে ঝাড়খণ্ড থেকে এখানে কোনও মাওবাদী ঢুকেছে।’ তখন ডিজি জানান, ‘আমরা এখনও পর্যন্ত তিন জনকে গ্রেফতার করেছি।’

অন্যদিকে, যে সমস্ত মাওবাদীরা আত্মসমর্পণ করেছে তারা ঠিকমতো সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পাচ্ছেন কিনা সে বিষয়টিও দেখতে বলেন মমতা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমরা ইতিমধ্যেই এই ধরনের ১০ হাজার মাওবাদীকে চাকরি দিয়েছি। তার মধ্যে যদি দুটো একটা বাদ পরে যায় তাহলে তাদের বায়ো ডাটা ডিজিকে কাছে পাঠিয়ে দাও। এখানে তোমাদের যেন কোনও নেগুলেন্সি কাজ না করে। তারা কিন্তু বাইরে থেকে লোক ডেকে নিয়ে আসছে। এটা আমার কাছে তথ্য রয়েছে। আমার সঙ্গে তোমাদের তথ্যের গ্যাপ রয়েছে।’ এরপরই মুখ্যমন্ত্রী ঝাড়গ্রাম যাওয়ার কথা জানান।

বন্ধ করুন