বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > আর RT-PCR নয়, র‍্যাপিড টেস্টে করোনা নেগেটিভ হলেই মিলবে ঘোরার সুযোগ : পশ্চিমবঙ্গ
আর RT-PCR নয়, র‍্যাপিড টেস্টে করোনা নেগেটিভ হলেই মিলবে ঘোরার সুযোগ : পশ্চিমবঙ্গ (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
আর RT-PCR নয়, র‍্যাপিড টেস্টে করোনা নেগেটিভ হলেই মিলবে ঘোরার সুযোগ : পশ্চিমবঙ্গ (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

আর RT-PCR নয়, র‍্যাপিড টেস্টে করোনা নেগেটিভ হলেই মিলবে ঘোরার সুযোগ : পশ্চিমবঙ্গ

চিঠিতে উল্লেখ আছে, পর্যটন ব্যবসাকে ঘুরে দাঁড় করাতেই এই নির্দেশিকা দেওয়া হচ্ছে।

পর্যটনপ্রেমীদের জন্য সুখবর। এখন থেকে আরটিপিসিআর টেস্ট করাতে লাগবে না, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টে নেগেটিভ এলেই রাজ্যের যে কোনও পর্যটন কেন্দ্রে প্রবেশের ছাড়পত্র মিলবে। সম্প্রতি পর্যটন দফতরের তরফে এই নির্দেশিকাই জারি করা হয়েছে।

কিছুদিন আগে তারাপীঠে যেতে হলে আরটিপিসিআর রিপোর্ট নেগেটিভ দেখাতে হচ্ছিল। তারাপীঠের পাশাপাশি দিঘা, বকখালি থেকে শুরু করে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন পর্যটনকেন্দ্রে এই একই নিয়ম চালু ছিল। আরটিপিসিআর টেস্টের খরচ এড়াতে অনেকেই পর্যটন কেন্দ্রমুখী হচ্ছিল না। এদিন রাজ্যের পর্যটন সচিব নন্দিনী মুখোপাধ্যায় সব জেলাশাসককে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছে, এবার থেকে র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট নেগেটিভ এলেই পর্যটন কেন্দ্রে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া যাবে। চিঠিতে উল্লেখ আছে, পর্যটন ব্যবসাকে ঘুরে দাঁড় করাতেই এই নির্দেশিকা দেওয়া হচ্ছে। তবে করোনা সংক্রান্ত অন্যান্য বিধিনিষেধ কিন্তু মানতে হবে হোটেল মালিক ও পর্যটকদের।|

সম্প্রতি হোটেল মালিকদের তরফে দাবি করা হচ্ছিল, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের ভিত্তিতেই পর্যটকদের আসার অনুমতি দেওয়া হোক। তাঁদের মতে, ওই রিপোর্ট খুব কম সময়ে পাওয়া যায় ও এর খরচও কম। এবার সেই হোটেল মালিকদের দাবি মেনেই নয়া এই নির্দেশিকা জারি করল রাজ্য সরকার। এরফলে পর্যটকদের হয়রানি যেমন কমল, তেমনি হোটেল মালিকদের ব্যবসা চালাতে সুবিধা হবে। গত বছর করোনা পরিস্থিতির কারণে মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়তে হয়েছিল পর্যটন ব্যবসায়ী ও হোটেল মালিকদের। তবে এবারে রাজ্য সরকারের নয়া নির্দেশিকায় কিছুটা হলেও হাসি ফুটেছে।

বন্ধ করুন