বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ট্রেনের টিকিটের কালোবাজারিতেও নাম জড়াল তৃণমূলের
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

ট্রেনের টিকিটের কালোবাজারিতেও নাম জড়াল তৃণমূলের

  • আরপিএফের দাবি, বৈধ নথি ছাড়াই অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কেটে বিক্রি করছিলেন ওই যুবক। তার পর স্পেশ্যাল ট্রেনগুলির টিকিট চড়া দামে বিক্রি করছিলেন খোলা বাজারে।

আর্থিক দুর্নীতিতে পশ্চিমবঙ্গের শাসকদল তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের নাম জড়ানো নতুন কিছু নয়। তাই বলে, ট্রেনের টিকিটের কালোবাজারিতে? শুক্রবার এই অভিযোগেই হাওড়া জেলার বেলুড় থেকে এক তৃণমূল কর্মীকে গ্রেফতার করেছে আরপিএফ। অভিযোগ, মানুষের অসহায়তার সুযোগ নিয়ে চড়া দামে স্পেশ্যাল ট্রেনের টিকিট বিক্রি করছিল সে। 

শুক্রবার বেলুড়ের ধর্মতলা রোডে একটি সাইবার কাফেতে হানা দিয়ে শুভজিৎ ঘোষ নামে এক যুবককে গ্রেফতার করে বালি আরপিএফ। সঙ্গে উদ্ধার হয়েছে ইন্টারনেটে কাটা বেশ কিছু ট্রেনের টিকিট। ধৃত যুবক বালি যুব তৃণমূল নেতার ভাই। 

আরপিএফের দাবি, বৈধ নথি ছাড়াই অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কেটে বিক্রি করছিলেন ওই যুবক। তার পর স্পেশ্যাল ট্রেনগুলির টিকিট চড়া দামে বিক্রি করছিলেন খোলা বাজারে। রেলের আইন অনুসারে যা সম্পূর্ণ অবৈধ। যদিও শুভজিতের অপকর্মের দায় নিতে চায়নি স্থানীয় তৃণমূল। দলের তরফে জানানো হয়েছে, অপরাধ করে থাকলে শাস্তি হোক। 

তবে শুধু বালিতে নয়, গত কয়েকদিন ধরে হাওড়া শাখার বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালাচ্ছে আরপিএফ। একই অভিযোগে শুক্রবার হুগলির রিষড়া থেকে শামিম আহমেদ নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার কাছ থেকেও বিপুল পরিমান ট্রেনের টিকিট উদ্ধার হয়েছে। 

 

বন্ধ করুন