বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Governor: কে এই লা গণেশন?‌ আরএসএস প্রচারক থেকে রাজ্যপাল, জানুন উত্থান কাহিনী
রাজ্যপাল লা গণেশন।

Governor: কে এই লা গণেশন?‌ আরএসএস প্রচারক থেকে রাজ্যপাল, জানুন উত্থান কাহিনী

  • বাংলার রাজ্যপালের দায়িত্ব যাঁকে দেওয়া হল তাঁর সম্পর্কে রাজনৈতিক মহল জানতে চান। ১৯৪৫ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি এই ব্যক্তির জন্ম। তামিলনাড়ুর ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্ম লা গণেশনের। তবে তিনি তামিলনাড়ু বিজেপির শীর্ষ নেতাও ছিলেন। পরে রাজ্যপাল হন। জীবন শুরু করেন আরএসএস সদস্য হয়ে। তারপর ধাপে ধাপে উত্থান।

উপরাষ্ট্রপতি পদে এনডিএ’‌র প্রার্থী জগদীপ ধনখড়। আর বাংলার রাজ্যপাল হিসাবে আসছেন মণিপুরের রাজ্যপাল লা গণেশন। এই খবর এখন দেশের মানুষ জেনে ফেলেছেন। তবে যতদিন না বাংলায় পরবর্তী রাজ্যপাল মনোনীত হচ্ছেন ততদিন লা গণেশনই মণিপুরের পাশাপাশি বাংলার রাজ্যপালের দায়িত্ব সামলাবেন বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কে এই লা গণেশন?‌ বাংলার রাজ্যপালের দায়িত্ব যাঁকে দেওয়া হল তাঁর সম্পর্কে রাজনৈতিক মহল জানতে চান। ১৯৪৫ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি এই ব্যক্তির জন্ম। তামিলনাড়ুর ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্ম লা গণেশনের। তবে তিনি তামিলনাড়ু বিজেপির শীর্ষ নেতাও ছিলেন। পরে রাজ্যপাল হন। জীবন শুরু করেন আরএসএস সদস্য হয়ে। তারপর ধাপে ধাপে উত্থান।

কেমন উত্থান লা গণেশনের?‌ লা গণেশন সঙ্ঘ পরিবারের কাছের মানুষ। অনেকে তাঁকে ঘরের ছেলেও বলে থাকেন। বাবাকে ছোটবেলায় তিনি হারান। তারপর তিনি অবিবাহিত থেকে আরএসএসের প্রচারক হয়ে কাজ করে যান। সঙ্ঘের প্রচারকরা বিয়ে করতে পারেন না। এই নিয়মে গণেশনও বিয়ে করেননি। তবে সঙ্ঘের নির্দেশেই রাজনীতিতে আসেন। দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন তিনি। তাঁর দেওয়া হলফনামা থেকে এই তথ্য উঠে এসেছে।

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ ১৯৭০ সালে জরুরি অবস্থার সময় আরএসএসের প্রচারক ছিলেন লা গণেশন। তখন তিনি একবছর গা–ঢাকা দিয়েছিলেন। সময় গড়িয়ে যেতেই বিজেপি তাঁকে জাতীয় সম্পাদক করেন। আর তারপরে সর্বভারতীয় সহ–সভাপতি করা হয় লা গণেশন–কে। এমনকী তামিলনাড়ু বিজেপির রাজ্য সভাপতি পর্যন্ত হয়েছিলেন। ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার সময়ে যে হলফনামা তিনি জমা দিয়েছিলেন সেটা থেকে জানা যায়, তিনি দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন। ২০১৬ সালে মধ্যপ্রদেশ থেকে বিজেপির হয়ে রাজ্যসভার সদস্য হন। নাজমা হেপতুল্লার পরিবর্তে তাঁকে সদস্য করে বিজেপি। ২০২১ সালের ২২ অগস্ট মনিপুরের রাজ্যপাল হন। এবার পশ্চিমবঙ্গের অতিরিক্ত দায়িত্ব পেলেন।

বন্ধ করুন