বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > নারদমামলা নিয়ে প্রধান বিচারপতি সিদ্ধান্তে হাসাহাসি হচ্ছে, দাবি আরেক বিচারপতির
কলকাতা হাইকোর্ট। (ফাইল ছবি, সৌজন্য কলকাতা হাইকোর্ট)
কলকাতা হাইকোর্ট। (ফাইল ছবি, সৌজন্য কলকাতা হাইকোর্ট)

নারদমামলা নিয়ে প্রধান বিচারপতি সিদ্ধান্তে হাসাহাসি হচ্ছে, দাবি আরেক বিচারপতির

  • গত ১৭ মে নারদকাণ্ডে অভিযুক্ত ৪ নেতামন্ত্রীর জামিনের মামলাটি ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির বেঞ্চে শুনানি হয়। বিচারপতি সিংহের প্রশ্ন, কেন সিঙ্গল বেঞ্চে শুনানির আগেই সরাসরি ডিভিশন বেঞ্চে চলে গেল সেই মামলা?

নারদমামলা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন তুলে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতিকে চিঠি দিলেন প্রধান বিচারপতি অরিন্দম সিংহ। ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি জে বিন্দলের এই সিদ্ধান্তে আইনজ্ঞ মহলে হাসাহাসি হচ্ছে বলে দাবি করেছেন তিনি। কী কারণে সিঙ্গল বেঞ্চের বদলে মামলাটি উচ্চতর বেঞ্চে পাঠানো হল তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। 

গত ১৭ মে নারদকাণ্ডে অভিযুক্ত ৪ নেতামন্ত্রীর জামিনের মামলাটি ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির বেঞ্চে শুনানি হয়। বিচারপতি সিংহের প্রশ্ন, কেন সিঙ্গল বেঞ্চে শুনানির আগেই সরাসরি ডিভিশন বেঞ্চে চলে গেল সেই মামলা? কেন একপক্ষের কথা শুনেই জামিনে স্থগিতাদেশ দেওয়া হল, তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। সঙ্গে তাঁর প্রশ্ন, কোন আইনবলে রিট পিটিশন গ্রহণ করে শুনানি করল ডিভিশন বেঞ্চ। এই শুনানি একমাত্র হতে পারে সিঙ্গল বেঞ্চে। 

আইনজীবী মিলন মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ‘ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি যা করেছেন তা আইনের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। তা সত্বেও পদের গরিমা রক্ষা করতে কেউ তাঁর সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করেনি। কোন অধিকার বলে, প্রধান বিচারপতি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সেই প্রশ্ন উঠতেই পারতো।’

শুক্রবার নারদকাণ্ডে অভিযুক্ত ৪ নেতামন্ত্রীকে শর্তসাপেক্ষে জামিন দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ।

 

বন্ধ করুন