বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বদলে যাচ্ছে সিআইডি’‌র ঠিকানা, ভবানী ভবন থেকে সরছে একাধিক দফতরও
সিআইডি’‌র তিনটি শাখাই আর ভবানী ভবনে থাকছে না। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
সিআইডি’‌র তিনটি শাখাই আর ভবানী ভবনে থাকছে না। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

বদলে যাচ্ছে সিআইডি’‌র ঠিকানা, ভবানী ভবন থেকে সরছে একাধিক দফতরও

  • কিন্তু কেন এগুলি সরিয়ে অন্যত্র নিয়ে যাওয়া হচ্ছে তা নিয়ে কেউ মুখ খোলেননি।

রাজ্যজুড়ে যখন নির্বাচন চলছে, ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে তৎপর সিবিআই, তখন সিআইডি’‌র কী ঠিকানা বদল হচ্ছে?‌ এই প্রশ্নই এখন ঘোরাফেরা করছে পুলিশ মহলে। সূত্রের খবর, সিআইডি’‌র তিনটি শাখাই আর ভবানী ভবনে থাকছে না। এমনকী উঠে যাচ্ছে এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চ তথা ইবিও। আর তিনটি শাখা হল— সাইবার ক্রাইম, বম্ব ডিসপোজাল স্কোয়াড এবং ফিঙ্গারপ্রিন্ট ব্যুরো। কিন্তু কেন এগুলি সরিয়ে অন্যত্র নিয়ে যাওয়া হচ্ছে তা নিয়ে কেউ মুখ খোলেননি।

এখন প্রশ্ন উঠছে, সিআইডি’‌র এই তিন শাখা উঠে যাচ্ছে কোথায়?‌ জানা গিয়েছে, এই সমস্ত কিছু নতুন ঠিকানা হতে চলেছে আরক্ষা ভবন। এটি সল্টলেকে অবস্থিত। এখানের সাত তলায় হবে সিআইডি’‌র এই শাখাগুলির দফতর। আর ৬ তলায় হবে এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চের দফতর। সম্প্রতি পুলিশ রিক্রুটমেন্ট বোর্ড এখানে চলে এসেছে।

ভবানী ভবনে এতগুলি দফতর নিয়ে কাজ করা কঠিন হয়ে উঠেছিল। তাই বিকল্প জায়গা হিসাবে আরক্ষা ভবনকে বেছে নেওয়া হচ্ছে। এখানে জায়গা বেশি। বহরেও বড়। তাই এখানে এইসব দফতরকে স্থানান্তর করা হচ্ছে। ভবানী ভবনে শুধু থাকবে গোয়েন্দা দফতর। বিভিন্ন জেরা পর্ব আর তদন্ত সেখান থেকে পরিচালনা হবে।

আরক্ষা ভবন থেকে হবে পরীক্ষা–নিরীক্ষার কাজ। যেখানে জায়গা বেশি লাগে। প্রশাসনিক সূত্রে খবর, সিআইডি’‌র কাজ আগামীদিনে আরও বাড়বে বলেই এখানে স্থানান্তরিত করা হচ্ছে। তবে কবে তা পাকাপাকি উঠে আসবে তার দিনক্ষণ এখনও ঠিক হয়নি। বিভিন্ন তদন্তের গতি বাড়াতেই এই পদক্ষেপ করা হচ্ছে বলে সূত্রের খবর।

বন্ধ করুন