ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

অবশেষে রোদ্দুর রায়ে বিরুদ্ধে থানায় দায়ের হল অভিযোগ, তদন্তে নামল পুলিশ

  • মঙ্গলবার দুপুরে বেলেঘাটা থানায় অভিযোগ দায়েরের পর সংগঠনের এক প্রতিনিধি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘রোদ্দুর রায় বাংলার কৃষ্টি সংস্কৃতিকে কলুষিত করছেন।

অবশেষে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যক্তিত্ব রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে পুলিশে দায়ের হল অভিযোগ। মঙ্গলবার দুপুরে খ্যতনামাদের সৃজন ব্যবহার করে অশালীনতা ছড়ানোর অভিযোগে তার বিরুদ্ধে কলকাতার বেলেঘাটা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে শিক্ষক ঐক্য মুক্তমঞ্চ নামে একটি সংগঠন।

মঙ্গলবার দুপুরে বেলেঘাটা থানায় অভিযোগ দায়েরের পর সংগঠনের এক প্রতিনিধি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘রোদ্দুর রায় বাংলার কৃষ্টি সংস্কৃতিকে কলুষিত করছেন। আধুনিকতার নামে রবীন্দ্রনাথ, নজরুলের মতো ব্যক্তিত্বকে অপমান করছেন তিনি। বাংলায় অপসংস্কৃতি ছড়াচ্ছেন এই ব্যক্তি।’ সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি জেলায় রদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে একটি করে অভিযোগ দায়ের করবে তারা।

তারা যে তৃণমূলের সঙ্গে জড়িত নন তা বোঝাতে সংগঠনটির ওই প্রতিনিধি বলেন, 'আগেই রাজ্য সরকারের রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা উচিত ছিল। তারা তা না করায় দায়িত্বশীল সংগঠন হিসাবে আমরা অভিযোগ দায়ের করেছি।'

বেলেঘাটা থানার তরফে অভিযোগ গ্রহণ করে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে কী কী ধারায় মামলা করা যায় তা নিয়ে আলোচনা করছেন আধিকারিকরা।

বলে রাখি, রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছবি বিতর্কের পর থেকেই জোর চর্চা চলছে সোশ্যাল মিডিয়ায় রোদ্দুর রায় নামে এই ব্যক্তিকে নিয়ে। অভিযোগ, সোশ্যাল মিডিয়ায় লাইভে রবীন্দ্রনাথের গান বিকৃত করেছেন তিনি। সেই বিকৃত গানে প্রভাবিত হয়েই পিঠে কুকথা লিখেছিলেন পড়ুয়ারা।

ঘটনার পরেও ফেসবুক লাইভে এসেছিলেন রোদ্দুর রায়। অভিযুক্ত পড়ুয়াদের পাশে দাঁড়িয়ে নানা কুকথা বলে সমালোচকদের নিন্দা করেছিলেন তিনি। তাঁর বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে গাঁজা খাওয়ার অভিযোগও রয়েছে।


বন্ধ করুন