বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > SSC scam: ‘এত টাকা ওদের দুজনের হতে পারে না’: অর্পিতার বাড়ি থেকে টাকা উদ্ধার নিয়ে মিঠুন

SSC scam: ‘এত টাকা ওদের দুজনের হতে পারে না’: অর্পিতার বাড়ি থেকে টাকা উদ্ধার নিয়ে মিঠুন

মিঠুন চক্রবর্তী।

আজ মিঠুন চক্রবর্তী সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন, ‘এত টাকা এই দুজনের হতে পারে তা। আমার মনে হয় অনেকের টাকা রয়েছে। ওনারা লুটের টাকা রক্ষা করতেন। তাই স্যার ম্যাডামদের রিকোয়েস্ট করবো নিজেদের এত কষ্ট দেবেন না। সত্যি কথাটা বলে দিন কষ্ট কম হয়ে যাবে। অন্যের কষ্ট কেন আপনারা সইছেন।’

গতকাল পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ মুখোপাধ্যায় আরও একটি ফ্লাট থেকে ২৮ কোটি টাকা উদ্ধারের ঘটনায় তোলপাড় গোটা রাজ্য। এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় অর্পিতার দুটি ফ্ল্যাট থেকে মোট ৫০ কোটি টাকা উদ্ধার হলেও আরও টাকা লুকিয়ে রাখা হয়েছে বলে মনে করছে ইডি। গোয়েন্দাদের অনুমান আরও অনেকেই জড়িতে রয়েছেন। গতকাল বিজেপির বৈঠকে যোগ দিতে গিয়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে নিয়ে সেরকম কিছু বলতে শোনা যায়নি বিজেপি নেতা মিঠুন চক্রবর্তী। আর অর্পিতার আরও একটি ফ্ল্যাট থেকে টাকা উদ্ধারের পরেই বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন মিঠুন চক্রবর্তী। মহাগুরু বক্তব্য, ‘অন্যের লুটের টাকা ওনারা রক্ষা করতেন।’

আজ মিঠুন চক্রবর্তী সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন, ‘এত টাকা এই দুজনের হতে পারে না। আমার মনে হয় অনেকের টাকা রয়েছে। ওনারা লুটের টাকা রক্ষা করতেন। তাই স্যার ম্যাডামদের রিকোয়েস্ট করবো নিজেদের এত কষ্ট দেবেন না। সত্যি কথাটা বলে দিন কষ্ট কম হয়ে যাবে। অন্যের কষ্ট কেন আপনারা সইছেন।’ অর্থাৎ মহাগুরুর স্পষ্ট দাবি এই ঘটনার পিছনে শুধুমাত্র পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতা মুখোপাধ্যায় জড়িত নয় আরও অনেকেই রয়েছে।

মিঠুন চক্রবর্তীর বক্তব্যকে সমর্থন জানিয়ে তৃণমূলকে কটাক্ষ করেন সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী। তাঁর কটাক্ষ, ‘দলের একটাই পোস্ট, বাকিরা সব ল্যাম্পপোস্ট।’ তাঁর বক্তব্য, ‘পার্থ ও অর্পিতা হল দাবার গুটির মতো। এত কিছু হয়ে যাচ্ছে অথচ পুলিশ টের পায় না তা কি করে হতে পারে?’ পুলিশ মন্ত্রী কেন চুপ রয়েছেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে। মিঠুনের মন্তব্যর প্রসঙ্গে তৃণমূল নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার দাবি করেন মিঠুন ইডির তদন্তকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে।

বন্ধ করুন