বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ছাই দিয়ে কখনও আগুন নেভানো যায় না: করোনা আর নেই বলায় দিলীপ ঘোষকে তোপ মমতার
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

ছাই দিয়ে কখনও আগুন নেভানো যায় না: করোনা আর নেই বলায় দিলীপ ঘোষকে তোপ মমতার

  • মুখ্যমন্ত্রী বললেন, ‘‌অনেকে বলছে কোভিড চলে গেছে। বলছে, করোনা ওভার। তাদের আমি বলে রাখি, ডিজিজ এত তাড়াতাড়ি ওভার হয় না।’‌

‘‌করোনা চলে গিয়েছে‌।’ গত বুধবার হুগলির ধনেখালিতে এক সভামঞ্চে এমন ঘোষণা করে বসেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। রবিবার নবান্ন সভাঘরে সাংবাদিক বৈঠকে দিলীপ ঘোষের নাম না করে কটাক্ষ করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি এদিন বললেন, ‘‌ছাই দিয়ে কখনও আগুন নেভানো যায় না।’‌

বুধবারের সভায় দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন, ‌‘করোনা চলে গিয়েছে। কিন্তু দিদিমণি আমাদের সভা–মিছিল করতে দেবে না বলে লকডাউন করছেন। কিন্তু আমাদের কেউ আটকাতে পারবে না। যেখানে দাঁড়াব সেখানেই সভা হবে।’ এই নিয়ে তুমুল বিতর্ক শুরু হয় রাজ্য রাজনীতি। প্রশ্ন ওঠে, যেখানে পশ্চিমবঙ্গে দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা নিয়ম করে ৩,০০০ ছাড়াচ্ছে, সেখানে কোনও জন প্রতিনিধি এমন বেপরোয়া মন্তব্য কীভাবে করতে পারে?‌

সেই প্রসঙ্গের উল্লেখ না করে এদিন নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী বললেন, ‘‌অনেকে বলছে কোভিড চলে গেছে। বলছে, করোনা ওভার। তাদের আমি বলে রাখি, ডিজিজ এত তাড়াতাড়ি ওভার হয় না। মনে রাখবেন, ছাই দিয়ে কখনও আগুন নেভানো যায় না। ছাইয়ের মধ্যে থেকেই আবার আগুন জ্বলে ওঠে।’‌ মুখ্যমন্ত্রীর আশঙ্কা, ‘‌আজকে ফার্স্ট ফেজ চলছে। এর পর সেকেন্ড ফেজ আসতে পারে। সেই অনুযায়ী আমাদের তৈরি থাকতে হবে।’‌

বরাবরই প্রতিটি সাংবাদিক বৈঠকে সাধারণ মানুষকে সচেতন করার চেষ্টা করেন জননেত্রী। এদিও তিনি বলেন, ‘‌নিয়মিত মাস্ক পরতে হবে। হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে। হাত–পা–মুখ ভাল করে ধুতে হবে। বাইরে বাজার থেকে যে সব জিনিস ঘরে নিয়ে আসা হচ্ছে সেগুলি ধুয়ে ঘরে ঢোকাতে হবে। কোনও কাগজ সরাসরি হাতে নেবেন না। স্যানিটাইজ করে তার পর নেওয়া যাবে।’‌

বন্ধ করুন