নির্ভয়া কাণ্ডের দুই দণ্ডিত (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
নির্ভয়া কাণ্ডের দুই দণ্ডিত (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

ফাঁসিতে স্থগিতাদেশের চেষ্টায় আদালতে গেল নির্ভয়াকাণ্ডের ২ দণ্ডিত

'আগেরটায় সব তথ্য ছিল না', নয়া প্রাণভিক্ষার আর্জি দাখিল করে জানায় অক্ষয় কুমার।

ফাঁসি কার্যকরের আগে বাকি নেই ৬০ ঘণ্টা। কিন্তু ফাঁসি পিছোতে কোনওরকম কসুর ছাড়ছে না নির্ভয়া কাণ্ডের দণ্ডিতরা। এবার ফাঁসির উপর স্থগিতাদেশ চেয়ে দিল্লির একটি কোর্টে গেল দুই দণ্ডিত অক্ষয় কুমার ও পবন কুমার গুপ্ত। আগামী সোমবার আবেদনটি শুনবে আদালত।

আরও পড়ুন : 'সরকারকে দণ্ডিতদের ফাঁসি দিতে হবে', কেঁদে ফেললেন নির্ভয়ার মা

আবেদনে জানানো হয়েছে, এদিন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে আবারও প্রাণভিক্ষার আর্জি জানিয়েছে অক্ষয়। তার দাবি, তার যে প্রাণভিক্ষার আর্জি খারিজ হয়ে গিয়েছিল, তাতে সব তথ্য ছিল না। এবারের প্রাণভিক্ষার আর্জিতে আর্থিক অবস্থা নিয়ে নতুন তথ্য রয়েছে বলে দাবি অক্ষয়ের।

আরও পড়ুন : হিংস্র শ্বাপদের মতো মরবে নির্ভয়ার অত্যাচারীরা, ঘোষণা ফাঁসুড়ের


অপর এক দণ্ডিত পবন কুমার গুপ্ত শুক্রবার মৃত্যুদণ্ডের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে কিউরেটিভ পিটিশন দাখিল করেছে। বাকি তিন দণ্ডিত আগেই কিউরেটিভ পিটিশন দাখিল করলেও তখন সেই প্রক্রিয়ার পথ মাড়ায়নি পবন। প্রাণভিক্ষার আর্জি জানাতেও অস্বীকার করে। আদালত নিযুক্ত আইনজীবীর সহায়তা দিতে অস্বীকৃত হয়েছিল পবন। যদিও পরে আইনজীবী এ পি সিংয়ের সঙ্গে আবেদন দাখিল করেছে।

আরও পড়ুন : মৃত্যুদণ্ড আটকাতে সুপ্রিম কোর্টে কিউরেটিভ পিটিশন দাখিল নির্ভয়া দণ্ডিতের

উল্লেখ্য, চার দণ্ডিতের বিরুদ্ধে প্রথম যে মৃত্যু পরোয়ানা জারি হয়েছিল, সেই অনুযায়ী তাদের গত ২২ জানুয়ারি ফাঁসি কার্যকরের দিন ধার্য হয়েছিল। কিন্তু তা পিছিয়ে যায়। নয়া মৃত্যু পরোয়ানায় গত ১ ফেব্রুয়ারি দিন কার্য হয়েছিল। কিন্তু তাও পিছিয়ে যায়। শেষপর্যন্ত তৃতীয় মৃত্যু পরোয়ানা জারি করে দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্ট জানায়, আগামী ৩ মার্চ চার দণ্ডিতের ফাঁসি কার্যকর হবে।

বন্ধ করুন