পরীক্ষায় আঁকতে দেওয়া হল বিজেপির প্রতীক, লিখতে দেওয়া হল নেহরুর নেতিবাচক নীতি সম্পর্কে।
পরীক্ষায় আঁকতে দেওয়া হল বিজেপির প্রতীক, লিখতে দেওয়া হল নেহরুর নেতিবাচক নীতি সম্পর্কে।

বোর্ড পরীক্ষার প্রশ্নে নেহরুর নেতিবাচক নীতি, বিজেপির নির্বাচনী প্রতীক

  • প্রশ্নপত্রে বিজেপির নির্বাচনী প্রতীক আঁকতে দেওয়া অথবা দেশ গঠনেে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুর নেতিবাচক দিক নিয়ে পর্যালোচনা করার মধ্যে দোষের কিছু নেই, দাবি মণিপুরের শিক্ষামন্ত্রীর।

পড়ুয়াদের বিজেপির নির্বাচনী প্রতীক আঁকা অথবা দেশ গঠন করতে গিয়ে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুর নেতিবাচক দিক নিয়ে পর্যালোচনা করার মধ্যে দোষের কিছু নেই। সম্প্রতি এই মন্তব্য করেছেন মণিপুরের শিক্ষামন্ত্রী ডিএইচ রাধেশ্যাম।

চলতি বিধানসভা অধিবেশনে কংগ্রেস বিধায়ক সূকর্যকুমার ওক্রামের প্রশ্নের উত্তরে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমি এই নিয়ে আলোচনা করেছি। ওই সমস্ত প্রশ্ন রাষ্ট্রবিজ্ঞানের পাঠ্যসূচির আওতায় পড়ে। ছাত্রদের রাজনীতি সম্পর্কে শিক্ষা দেওয়া প্রয়োজন। পরের বছর এমন আর একটি প্রশ্নপত্র তৈরি করতেও আমরা বলতে পারি, যাতে আমরাও কিছু শিখি।’

মণিপুর উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা পর্ষদ পরিচালিত গত দ্বাদশ শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে ছাত্রদের বিজেপির নির্বাচনী প্রতীক আঁকতে দেওয়া হয়। এ ছাড়া, দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুর পদক্ষেপের চারটি নেতিবাচক বৈশিষ্ট উল্লেখ করতেও বলা হয় প্রশ্নপত্রে।

চার নম্বরের এই দুই বিতর্কিত প্রশ্ন-সহ গোটা প্রশ্নপত্রটির ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হলে ভাইরাল হয়ে যায়। তার ভিত্তিতেই রাজ্যের শাসকদলকে বিধানসভায় আক্রমণের নিশানা করে বিরোধী কংগ্রেস।

বন্ধ করুন