বাংলা নিউজ > কর্মখালি > WBJEE Result 2022 Declared: প্রকাশিত রাজ্য জয়েন্টের ফলাফল, জেনে নিন রেজাল্ট
WBJEE Result 2022 Declared: প্রকাশিত রাজ্য জয়েন্টের ফলাফল। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে বিজয় বাটে/হিন্দুস্তান টাইমস)

WBJEE Result 2022 Declared: প্রকাশিত রাজ্য জয়েন্টের ফলাফল, জেনে নিন রেজাল্ট

WBJEE Result 2022 Declared: অবশেষে রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রাস পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হল (WB Joint Entrance Results 2022)। আপাতত শুধুমাত্র আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশিত হয়েছে। কিছুক্ষণ পর থেকে ওয়েবসাইট প্রাপ্ত নম্বর দেখতে পারবেন পরীক্ষার্থীরা। রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রাস বোর্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে ‘র‌্যাঙ্ক কার্ড’ ডাউনলোড করতে পারবেন।

প্রকাশিত হয়ে গেল রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রাস পরীক্ষার ফলাফল (WBJEE Result 2022 Declared)। আপাতত আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশ করা হয়েছে। বিকেল ৪ টে থেকে অনলাইনে রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রাস বোর্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট www.wbjeeb.nic.in এবং www.wbjeeb.in থেকে ‘র‌্যাঙ্ক কার্ড’ ডাউনলোড করা যাবে

(WB Joint Entrance Results 2022 Live Updates: রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রাসের ফলাফলের লাইভ আপডেট দেখুন এখানে)

কীভাবে রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রাস পরীক্ষার রেজাল্ট দেখবেন? (How to Check WBJEE Result 2022)

১) রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রাস বোর্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট www.wbjeeb.nic.in এবং www.wbjeeb.in-তে যান।

২) WBJEE 2022 ট্যাবে ক্লিক করুন।

৩) WBJEE 2022 Result লিঙ্কে ক্লিক করুন।

৪) নিজের প্রয়োজনীয় তথ্য দিতে হবে।

৫) নিজের ‘র‌্যাঙ্ক কার্ড’ দেখে নিন। তা ভবিষ্যতের জন্য ডাউনলোড করে রেখে দিন।

২০২২ সালের রাজ্য জয়েন্ট পরীক্ষা (WBJEE Exam 2022)

চলতি বছর ৩০ এপ্রিল রাজ্য জয়েন্ট পরীক্ষা হয়েছিল। এবার মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল প্রায় ১০২,০০০। পরীক্ষার আগে জয়েন্ট এন্ট্রাস বোর্ডের চেয়ারম্যান মলয়েন্দু সাহা দাবি করেছিলেন, এবার ভিন রাজ্যের প্রায় ৩২,০০০ জন পরীক্ষা দেবেন।

লাদাখ (একজন), উত্তর ভারত, উত্তর-পূর্ব ভারতের বেশিরভাগ রাজ্য, গোয়া, আন্দামান ও নিকোবর এবং দমন ও দিউয়ের মতো রাজ্য বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের পরীক্ষার্থীরাও রেজিস্ট্রেশন করেছিলেন। সবমিলিয়ে অফলাইনে পরীক্ষা হয়েছিল মোট ২৭৭ টি কেন্দ্রে। ২৭৪ টি কেন্দ্র ছিল পশ্চিমবঙ্গে। ত্রিপুরায় দুটি এবং অসমে একটি কেন্দ্রেও জয়েন্ট পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল।

কী ধাঁচে এবারের জয়েন্ট পরীক্ষা হয়েছিল?

ইঞ্জিনিয়ারিয়ারিং/টেকনোলজি, ফার্মেসি এবং আর্কিটেকচারের স্নাতক স্তরের কোর্সে ভরতির জন্য মোট ২০০ নম্বরের পরীক্ষা হয়েছিল। প্রথম পর্যায়ে (সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১ টা) অঙ্ক এবং দ্বিতীয় পর্যায়ে (দুপুর ২ টো থেকে বিকেল ৪ টে) পদার্থবিদ্যা ও রসায়নের পরীক্ষা হয়েছিল।

অঙ্কে ছিল ১০০ নম্বর (মোট ৭৫ টি প্রশ্ন)। পদার্থবিদ্যা ও রসায়নে ৫০ নম্বর করে বরাদ্দ ছিল (দুটি বিষয়ে ৪০ টি করে প্রশ্ন ছিল)। তবে সব প্রশ্নে নেগেটিভ মার্কিং ছিল না। ক্যাটেগরি ১ এবং ক্যাটেগরি ২-র প্রশ্নে নেগেটিভ মার্কিং ছিল। ক্যাটেগরি ৩-এর কোনও প্রশ্নে নেগেটিভ মার্কিং ছিল না। পুরোটাই এমসিকিউ ধাঁচে পরীক্ষা হয়েছিল।

গত বছরের রাজ্য জয়েন্ট পরীক্ষার ফলাফল (WBJEE Results 2021)

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যে গত বছর অফলাইনে পরীক্ষা হয়েছিল। ৭৪ শতাংশ ছাত্র এবং ২৬ শতাংশ ছাত্রী পরীক্ষা দিয়েছিলেন (মোট ৯২,৬৯৫ জন রেজিস্ট্রেশন করেছিলেন, পরীক্ষা দিয়েছিলেন ৬৫,১৭০ জন)। ২৩ শতাংশ পরীক্ষার্থী ছিলেন ভিনরাজ্যের।

সেই পরীক্ষায় ৯৯ শতাংশের বেশি পড়ুয়া সফল হয়েছিলেন। প্রথম হয়েছিলেন রহড়া রামকৃষ্ণ মিশনের ছাত্র পাঞ্চজন্য দে। দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্থান দখল করেছিলেন বাঁকুড়া জেলা স্কুলের সৌম্যজিৎ দত্ত এবং শান্তিপুর মিউনিসিপ্যাল স্কুলের ব্রতীন মণ্ডল। চতুর্থ হয়েছিলেন অঙ্কিত মণ্ডল।

রাজ্য জয়েন্ট বোর্ডের ইতিহাস (WBJEE)

১৯৬২ সালে পশ্চিমবঙ্গ জয়েন্ট এন্ট্রাস বোর্ড (West Bengal Joint Entrance Examinations Board বা WBJEEB) প্রতিষ্ঠা করে রাজ্য সরকার। সংবিধানের ১৬২ নম্বর ধারা মেনে রাজ্য জয়েন্ট বোর্ড তৈরি করা হয়। ২০১৪ সালে নির্দিষ্ট আইন (West Bengal Act XIV) প্রয়োগ করে জয়েন্ট বোর্ডের হাতে বিশেষ ক্ষমতা তুলে দেয় রাজ্য।

স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর স্তরে প্রফেশনাল, ভোকেশনাল এবং সাধরণ ডিগ্রি কোর্সে ভরতির জন্য রাজ্য জয়েন্ট বোর্ডকে ‘কমন এন্ট্রাস এগজামিনেশন’ (Common Entrance Examinations) নেওয়ার ক্ষমতা প্রদান করা হয়। সেইসঙ্গে অনলাইনে কাউন্সেলিং প্রক্রিয়া চালানোর ক্ষমতা প্রদান করে রাজ্য সরকার।

বন্ধ করুন