বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > বাসন্তী বিধানসভা কেন্দ্র ২০২১: ভোটের প্রার্থী, অতীতের ফলাফল - একনজরে সব তথ্য
আগামী ৬ এপ্রিল বাসন্তী কেন্দ্রে তৃতীয় দফায় ভোটগ্রহণ হবে। (ছবি সৌজন্য নিজস্ব চিত্র)
আগামী ৬ এপ্রিল বাসন্তী কেন্দ্রে তৃতীয় দফায় ভোটগ্রহণ হবে। (ছবি সৌজন্য নিজস্ব চিত্র)

বাসন্তী বিধানসভা কেন্দ্র ২০২১: ভোটের প্রার্থী, অতীতের ফলাফল - একনজরে সব তথ্য

  • আগামী ৬ এপ্রিল বাসন্তী কেন্দ্রে তৃতীয় দফায় ভোটগ্রহণ হবে।

বাসন্তী বিধানসভা কেন্দ্রটি তফসিলি জাতির জন্য সংরক্ষিত। এবার তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী হলেন শ্যামল মণ্ডল। এই আসনে বিজেপির তরফে দাঁড়াচ্ছেন রমেশ মাজি। অন্যদিকে, বাম-কংগ্রেস-ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের (আইএসএফ) তরফে এই কেন্দ্রে দাঁড়াচ্ছেন আরএসপির সুভাষ নস্কর।

দক্ষিণ ২৪ পরগনা প্রেসিডেন্সি বিভাগের অন্তর্ভুক্ত জেলা। জেলার সদর আলিপুরে। বাসন্তী এই জেলার একটি বিধানসভা কেন্দ্র। এই জেলার উত্তরদিকে কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগনা, পূর্ব দিকে বাংলাদেশ, পশ্চিম দিকে হুগলি নদী ও দক্ষিণ দিকে বঙ্গোপসাগর রয়েছে। একদা আরএসপির শক্ত ঘাটি হিসেবেই পরিচিত ছিল এই কেন্দ্র। আগামী ৬ এপ্রিল বাসন্তী কেন্দ্রে তৃতীয় দফায় ভোটগ্রহণ হবে।

২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে এই কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী গোবিন্দচন্দ্র নস্কর জয়ী হয়েছিলেন৷ তাঁর প্রাপ্ত ভোট ছিল ৯০,৫২২৷ দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন আরএসপি প্রার্থী সুভাষ নস্কর৷ তাঁর প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ৭৩,৯১৫৷তৃণমূলের গোবিন্দচন্দ্র নস্কর তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আরএসপি প্রার্থী সুভাষ নস্করকে ১৬,৬০৭ ভোটে পরাজিত করেছিলেন। আবার ২০১১ সালের নির্বাচনে আরএসপির সুভাষ নস্কর তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কংগ্রেসের অর্ণব রায়কে পরাজিত করেছিলেন। ১৯৮২ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত টানা ১৫ বছর বাসন্তী (তফসিলি) কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছিলেন সুভাষ। ২০০৬ সালে বিজেপির অমলকান্তি রায়, ২০০১ ও ১৯৯৬ সালে তৃণমূল ও কংগ্রেসের জয়ন্ত সরকার, ১৯৯১ ও ১৯৮২ সালে কংগ্রেসের বিপিনবিহারী সরদার ও ১৯৮৭ সালে কংগ্রেসের জ্ঞানেন্দ্রনাথ মজুমদারকে পরাজিত করেছিলেন। ১৯৭৭ সালে আরএসপির কালীপদ বর্মণ কংগ্রেসের চিত্তরঞ্জন নস্করকে এই কেন্দ্রে পরাজিত করেছিলেন। ১৯৭১ ও ১৯৭২ সালে কংগ্রেসের পঞ্চানন সিনহা এই আসনে জয়ী হয়েছিলেন। ১৯৬৯ সালে আরএসপির অশোক চৌধুরী জয়ী হয়েছিলেন। ১৯৬২ ও ১৯৬৭ সালে এই আসনে জয়ী হয়েছিলেন কংগ্রেসের শাকিলা খাতুন। এর আগে অবশ্য বাসন্তী বিধানসভা কেন্দ্রটি ছিল না।

বন্ধ করুন