বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > রূপান্তরকামী রেডিও জকির মৃত্যুর দু-দিনের মধ্যেই তাঁর সঙ্গীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার!
ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার অনন্যা কুমারী অ্যালেক্স-এর পার্টনারের (ছবি-সংগৃহীত) 
ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার অনন্যা কুমারী অ্যালেক্স-এর পার্টনারের (ছবি-সংগৃহীত) 

রূপান্তরকামী রেডিও জকির মৃত্যুর দু-দিনের মধ্যেই তাঁর সঙ্গীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার!

  • অনন্যা কুমারী অ্যালেক্সের মৃত্যুর ৪৮ ঘন্টার মধ্যে উদ্ধার সঙ্গীর ঝুলন্ত দেহ! প্রেমিকার মৃত্যুর ধাক্কা সামলাতে না পেরে অবসাদগ্রস্ত হয়েই এই ‘আত্মহত্যা’, মনে করচে পুলিশ। 

মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী থাকল কোচি! কেরলের প্রথম রূপান্তরকামী রেডিও জকি অনন্যা কুমারী অ্যালেক্সের রহস্যমৃত্যুর দু-দিনের মাথায় উদ্ধার তাঁর সঙ্গী জিজু রাজের ঝুলন্ত দেহ।শুক্রবার দুপুরে কোচিতে জিজু রাজের এক বন্ধুর বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় প্রয়াত রেডিও জকি অনন্যা কুমারীর সঙ্গীর দেহ। ৩৬ বছর বয়সী জিজু রাজ তিরুবন্তপুরমের জাগাথে গ্রামের বাসিন্দা। 

মঙ্গলবার নিজের অ্যাপার্টমেন্টের বেডরুম থেকে উদ্ধার হয় অনন্যা কুমারীর দেহ, অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করলেও অবসাদগ্রস্ত অনন্যা আত্মহত্যাই করেছেন বলে প্রাথমিক অনুমান পুলিশের। 

মাত্র এক বছর আগে কোচির এক বেসরকারি হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে লিঙ্গ পরিবর্তন করেছিলেন অনন্যা। ঘনিষ্ঠমহল সূত্রে খবর, এরপর নানারকম শারীরিক কষ্টে ভুগছিলেন তিনি, যার জেরে কাজও করতে পারছিলেন না, এরপর অবসাদ ঘিরে ধরে তাঁকে। অনন্যার মৃত্যুর ধাক্কা সামলে উঠতে পারেননি তাঁর সঙ্গী জিজু রাজ, সেই ধাক্কার জেরেই আত্মহননের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সে, এমনটাই মনে করছে পুলিশ। ইতিমধ্যেই ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে দেহ। অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

রেডিও জকি অনন্যা কুমারী অ্যালেক্সের মৃত্যুর নিরপেক্ষ তদন্তের নির্দেশ আগেই দিয়েছে কেরল সরকার। অনন্যার বন্ধুদের দাবি চিকিত্সকদের গাফিলতি এবং সামাজের অবহেলা ও কটূক্তি মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিয়েছে অনন্যাকে। এই ঘটনাকে নিছক আত্মহত্যা বলে চালানো যেতে পারে না।  

চলতি বছর এপ্রিলে প্রথম রূপান্তরকামী হিসেবে বিধানসভা নির্বাচনে নাম লিখিয়েছিলেন প্রয়াত রেডিও জকি অনন্যা কুমারী। কিন্তু ভোট শুরু হওয়ার ৩ দিন আগে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছিলেন বেঙ্গরা কেন্দ্রে ডেমোক্র্যাটিক সোশ্যাল জাস্টিস পার্টি (ডিএসজেপি)-র প্রার্থী অনন্যা কুমারী অ্যালেক্স।সেই সময় অনন্যার অভিযোগ ছিল, দলের লোকজনই তাঁকে লাগাতার হেনস্থা করছে, এমনকি খুনের হুমকিও পাচ্ছিলেন তিনি। 

 

বন্ধ করুন