বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘খুন ও ধর্ষণের চেষ্টা’ করা হয়েছিল ঢাকাই অভিনেত্রী পরীমনিকে, জামিন অভিযুক্তদের
পরীমণি (ফাইল ছবি)
পরীমণি (ফাইল ছবি)

‘খুন ও ধর্ষণের চেষ্টা’ করা হয়েছিল ঢাকাই অভিনেত্রী পরীমনিকে, জামিন অভিযুক্তদের

ধর্ষণচেষ্টা, হত্যাচেষ্টা ও মারধরের অভিযোগে গত ১৪ জুন নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমি-সহ ছয় জনের নামে থানায় মামলা করেন পরীমনি।

বাংলাদেশের অভিনেত্রী পরীমনিকে 'ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টা' মামলায় জামিন পেলেন প্রধান দুই অভিযুক্ত নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমি। পাঁচ হাজার টাকা মুচলেকা দিয়ে মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য হওয়া পর্যন্ত তাঁদের জামিন দিয়েছে আদালত। আর তা নিয়েই সরব হয়েছেন বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক জগতের একটা অংশ। 

ধর্ষণচেষ্টা, হত্যাচেষ্টা ও মারধরের অভিযোগে গত ১৪ জুন নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমি-সহ ছয় জনের নামে থানায় মামলা করেন পরীমনি। প্রসঙ্গত, প্রথমে বাংলাদেশ পুলিশের সাহায্য না পেয়ে পরী সোশ্যাল মিডিয়ার দ্বারস্থ হন। তার পোস্ট ভাইরাল হতেই শুরু হয় শোরগোল। মা-কে হারিয়েছেন ছেলেবেলায়। তাই সেদেশের প্রধানমন্ত্রী হাসিনাকেই ‘মা’ সম্বোধন করে পরিমণী লেখেন, ‘আমার আপনাকে দরকার মা। আমার এখন বেঁচে থাকার জন্য আপনাকে দরকার মা। মা আমি বাঁচতে চাই। আমাকে বাঁচিয়ে নাও মা।’ তারপরেই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন।

পরীমনি (ফাইল ছবি)
পরীমনি (ফাইল ছবি)

এরপর ১৪ জুন অভিযুক্ত নাসির উদ্দিন নামে ওই ব্যবসায়ীকে তাঁর উত্তরার বাড়ি থেকে আটক করা হয়েছে বলে জানায় গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার হারুন-অর-রশিদ। অভিযুক্ত প্রত্যেকেই ওই দিন আটক হয়েছিলেন। ওই ব্যবসায়ীর বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে মাদক দ্রব্য়। তারপর চলছিল মামলা। আজ আদালতের পক্ষ থেকে জামিন দেওয়া হল নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমি-কে। 

পরির সপক্ষে গলা তুলেছিলেন দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। সহকর্মী হিসেবে শুধু নন, দেশের একজন নাগরিক হিসেবে, একজন মহিলা হিসেবে, একই ইন্ডাস্ট্রির সদস্য হিসেবে পরীমণির পাশে দাঁড়ালেন জয়া। ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

বন্ধ করুন