বাড়ি > বায়োস্কোপ > করণের পার্টিতে ‘মাদক নেন’ দীপিকা, ভিকি-সহ তারকারা: NCB তদন্তের দাবি সাংসদের
বলিউড তারকাদের বিরুদ্ধে তদন্তের আবেদন জানালেন প্রাক্তন শিরোমণি অকালি দলের সাংসদ মনজিন্দর সিং সিরসা।
বলিউড তারকাদের বিরুদ্ধে তদন্তের আবেদন জানালেন প্রাক্তন শিরোমণি অকালি দলের সাংসদ মনজিন্দর সিং সিরসা।

করণের পার্টিতে ‘মাদক নেন’ দীপিকা, ভিকি-সহ তারকারা: NCB তদন্তের দাবি সাংসদের

  • করণ জোহরের বাড়িতে আয়োজিত পার্টিতে অবাধ মাদক সেবনের ব্যবস্থা ছিল। সম্প্রতি এমনই অভিযোগ করেছেন প্রাক্তন সাংসদ।

MUMBAI : করণ জোহরের বাড়িতে মাদক পার্টি আয়োজনের অভিযোগ তুলে কেন্দ্রীয় মাদক নিয়ন্ত্রণ বোর্ড-এ (এনসিবি) তদন্তের আবেদন জানালেন প্রাক্তন শিরোমণি অকালি দলের সাংসদ মনজিন্দর সিং সিরসা। 

২০১৯ সালে করণ জোহরের বাড়িতে আয়োজিত পার্টিতে অবাধ মাদক সেবনের ব্যবস্থা ছিল। সম্প্রতি সেই পার্টির ভিডিয়ো ক্লিপ পোস্ট করে এমনই অভিযোগ করেছেন প্রাক্তন সাংসদ। এনসিবি প্রধান রাকেশ সাক্সেনার সঙ্গে দেখা করে এই অভিযোগ জানানোর পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় বোর্ডকে লেখা তাঁর আবেদনের প্রতিলিপি সাক্সেনার সঙ্গে শেয়ার করেছেন সিরসা। 

তাঁর চিঠির সঙ্গে অ্যাটাচ করা স্ক্রিনশট দেখে বোঝা যাচ্ছে, প্রধানত দীপিকা পাড়ুকোন, ভিকি কৌশল, মালাইকা অরোরা, বরুণ ধাওয়ান, অর্জুন কাপুর ও শাহিদ কাপুরের বিরুদ্ধে তিনি মাদ সেবন, মজুত রাখা এবং বাড়ির চৌহদ্দিতে এই অপরাধ সংঘটনের জন্য আমন্ত্রক করণ জোহরের বিরুদ্ধে এনসিবি-কে তদন্তের আর্জি জানিয়েছেন প্রাক্তন সাংসদ। ওই পার্টিতে যে ঢালাও মাদক সেবন চলেছিল, সেই দাবি করেছেন সিরসা।

তাঁর বাড়িতে আয়োজিত ওই পার্টিতে উপস্থিত কেউ মাদক সেবন করেননি, সে কথা এর আগেও জানিয়েছেন করণ জোহর। তাঁর যুক্তি, ‘ইন্ডাস্ট্রির সফল সদস্যরা সারা সপ্তাহ কঠিন পরিশ্রমের পরে একরাত আড্ডা আর খোশগল্পে মেতেছিলেন। আমি নিজেই ভিডিয়োটি স্বইচ্ছায় রেকর্ড করি। যদি অবৈধ কিছু ঘটে থাকে, তা হলে তা প্রকাশ করার মতো বোকা আমি নই।’

ভিডিয়োর অংশবিশেষ নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় তিনি ব্যাখ্যা করেন, ‘আপাতদৃষ্টিতে প্রকাশ্যে না খোঁটা অনুচিত। আপাতদৃষ্টিতে ব্যাক পকেটে মোবাইল ফোনা রাখা অনুচিত। আপাতদৃষ্টিতে আলোর ঝলককে পাউডার মনে হতে পারে।’

করণের বক্তব্য, ‘ভিডিয়ো রেকর্ড করার পাঁচ মিনিট আগে আমার মা ওখানে উপস্থিত ছিলেন। এমনই এক পারিবারিক, আনন্দময়, সামাজিক আড্ডা ছিল সেটা, যেখানে বন্ধুরা কথা বলার পাশাপাশি গান শুনে সময় কাটাচ্ছিলেন। আর কিছুই সেখানে হয়নি।’

সুশান্ত সিং রাজপুত হত্যা মামলায় যুক্ত থাকার অভিযোগে এ পর্যন্ত ২০ জনকে গ্রেফতার করেছে এনসিবি। এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টোরেট-এর আনুষ্ঠানিক আলোচনার জেরে অভিনেতার মৃত্যুর সঙ্গে সম্পর্কিত মাদক সেবন, সংগ্রহ ও পাচার সংক্রান্ত একাধিক মোবাইল ফোন চ্যাট রেকর্ডের ভিত্তিতে এই পদক্ষেপ করে এনসিবি। 

বন্ধ করুন