বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'মানুষের ভুল'-এ ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জের 'উত্তাপ' বাড়ালেন মৌনী রায়
মৌনী রায়ের এই ছবি দুটিই পোস্ট করা হয়েছিল। (ছবি সৌজন্য, ইনস্টাগ্রাম imouniroy)
মৌনী রায়ের এই ছবি দুটিই পোস্ট করা হয়েছিল। (ছবি সৌজন্য, ইনস্টাগ্রাম imouniroy)

'মানুষের ভুল'-এ ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জের 'উত্তাপ' বাড়ালেন মৌনী রায়

  • একজন লেখেন, 'তোমার ভুল ভুল, আর আমরা ভুল হলেই জরিমানা।'

শনিবার বেলায় ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে (এনএসই) ‘উত্তাপ’ বাড়িয়ে দিলেন অভিনেত্রী মৌনী রায়। কিছুক্ষণ পর সেই ‘উত্তাপ’ মালুম হতেই তড়িঘড়ি ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামে এনএসই। দাবি করা হয়, ‘মানুষের ভুলে’ সেই ‘অযাচিত’ পোস্ট করা হয়েছে।

ঠিক কী হয়েছিল ঘটনাটি? শনিবার বেলার দিকে ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে মৌনীর দুটি ছবি ভেসে ওঠে। সঙ্গে ক্যাপশনে লেখা হয়, ‘শনিবারের উত্তাপ বেড়ে গিয়েছে। মৌনী রায়কে অসামান্য লাগছে।’ সঙ্গে #সেক্সিডিভা (#sexydiva) #বিউটিফুলডিভা (#beautifuldiva) #হটগার্ল (#hotgirl)-এর মতো কয়েকটি হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করা হয়।

প্রাথমিকভাবে এনএসইয়ের টুইটারে মৌনীর মোহময়ী ছবি দেখে অবাক হয়ে যান অধিকাংশ মানুষ। বিশেষত ক্যাপশন দেখে রীতিমতো হতভম্ব হয়ে যান তাঁরা। অনেকে ভাবছিলেন, নির্ঘাত হ্যাকারদের কবলে পড়েছে এনএসইয়ের টুইটার অ্যাকাউন্ট। যদিও কিছুক্ষণ পর সেই ভুল ভাঙে। আর সেই বিভ্রান্তি দূর করে এনএসই।

একটি টুইটবার্তায় বলা হয়, 'আজ বেলা ১২ টা ২৫ মিনিটে এনসএসইয়ের হ্যান্ডেলে অযাচিত পোস্ট করা হয়েছে। এটা মানুষের ভুল। যা করেছে এনএসইয়ের অ্যাকাউন্টের দায়িত্বপ্রাপ্ত এজেন্সি। কোনওরকম হ্যাকিংয়ের ঘটনা ঘটেনি। অসুবিধার জন্য আমাদের গ্রাহতদের কাছে আন্তরিকভাবে ক্ষমা চাইছি।'

তাতে অবশ্য ট্রোলিং এবং মিমের বন্যা আটকায়নি। তা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায়। এক নেটিজেন বলেন, ‘অ্যাকাউন্ট পালটাতে ভুলে গিয়েছেন।’ একজন লেখেন, 'তোমার ভুল ভুল, আর আমরা ভুল হলেই জরিমানা।' কেউ কেউ তো একধাপ এগিযে অ্যাকাউন্ট সামলানোর জন্য এনএসইকে নয়া এজেন্সির সঙ্গে চুক্তি করার পরামর্শ দেয়। এক নেটিজেন বলেন, ‘যিনি এনএসইয়ের টুইটার হ্যান্ডেল চালাচ্ছিলেন, তিনি নিশ্চয়ই এই শনিবার দু'পেগ বাড়তি মদ খেয়েছেন।’

বন্ধ করুন