বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ঝুলিতে 'বরবাদ', 'আরশি নগর'! কেন আর প্রথম সারির নির্মাতাদের ছবিতে নেই ঋত্বিকা
এক সময় বড় প্রযোজনা সংস্থাগুলির সঙ্গে কাজ করেন ঋত্বিকা।

ঝুলিতে 'বরবাদ', 'আরশি নগর'! কেন আর প্রথম সারির নির্মাতাদের ছবিতে নেই ঋত্বিকা

  • ঋত্বিকার ঝুলিতে রয়েছে একাধিক সফল বাণিজ্যিক ছবি। কিন্তু ২০২১ সালে 'মিস কল'-এর পর আর কোনও প্রথম সারির প্রযোজনার সংস্থার ছবিতে দেখা যায়নি তাঁকে।

অভিনয় জগতে হাতেখড়ি ২০০৭ সালে। সৌজন্যে 'বর আসবে এখুনি'। সেই ছবির সুবাদেই ক্যামেরার সামনে এসেছিলেন ঋত্বিকা সেন। এর পর আর পিছনে ফিরে তাকাননি। কাজ করেছেন অপর্ণা সেন, সৃজিত মুখোপাধ্যায় এবং রাজ চক্রবর্তীর মতো পরিচালকদের সঙ্গে। শ্রীভেঙ্কটেশ ফিল্মস, সুরিন্দর ফিল্মসের মতো একাধিক বড় প্রযোজনার সংস্থার ছবিতে প্রায় নিয়মিত দেখা যেত তাঁকে।

কেন সেই ছবি বদলে গেল হঠাৎ? কেন আর 'নামী' নির্মাতাদের পছন্দের তালিকা থেকে কি মুছে গেল তাঁর নাম?

হিন্দুস্তান টাইমস বাংলাকে ঋত্বিকা বলেন, ‘ভালো গল্পের খিদে আমার খুব বেশি। যে বা যাঁরা আমাকে ভালো গল্প, চিত্রনাট্য দেবেন, তাঁদের সঙ্গেই কাজ করব। কোনও বড় প্রযোজনা সংস্থার থেকে মনের মতো প্রস্তাব পেলে নিশ্চয়ই কাজ করব।’

'আরশি নগর', 'শাহজাহান রিজেন্সি'-র মতো ছবিতে অভিনয় করেছেন ঋত্বিকা। এ ছাড়াও তাঁর ঝুলিতে রয়েছে একাধিক সফল বাণিজ্যিক ছবি। কিন্তু ২০২১ সালে 'মিস কল'-এর পর আর কোনও প্রথম সারির প্রযোজনার সংস্থার ছবিতে দেখা যায়নি তাঁকে। পিছিয়ে পড়ার ভয় হয় না? ঋত্বিকার যুক্তি, 'একটি প্রযোজনা সংস্থা বড় না ছোট, তা বিচার করা হয় কাজের প্রেক্ষিতে। আর এ সব নিয়ে আমার আগাগোড়াই কোনও ছুৎমার্গ নেই। কেরিয়ারের শুরু থেকেই নানা ধরনের হাউজের সঙ্গে কাজ করেছি।'

১৮ জুলাই মুক্তি পাবে ঋত্বিকার নতুন ছবি। নাম 'প্রথম বারের প্রথম দেখা'। এক স্কুলছাত্রীর ভূমিকায় দেখা যাবে অভিনেত্রীকে। এই ছবির ক্ষেত্রেও নতুন পরিচালক, প্রযোজক। অভিজ্ঞতা কেমন? 'এখানে আমাকে সকলেই খুব সম্মান দিয়েছে। বড় প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে কাজ করে অনেক ধরনের অভিজ্ঞতা হয়েছে। সেগুলিকে এই ছবির ক্ষেত্রে কী ভাবে কাজে লাগানো যায়, তা নিয়ে পরিচালকের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। বলা যায়, নামী জায়গা থেকে অনেক কিছু শিখে তা নতুন জায়গার উন্নতির জন্য কাজে লাগাই', বললেন 'বরবাদ'-এর অভিনেত্রী।

অনেক অভিনেতাই এখন ছবির পাশাপাশি ওয়েব সিরিজে কাজ করছেন। ঋত্বিকা ব্যতিক্রমী কেন? ঋত্বিকা জানান, ভালো চরিত্র পেলেই পদার্পন করবেন ওটিটি প্ল্যাটফর্মে। তাঁর কথায়, 'অনেকেই ভাবেন আমি সাহসী চরিত্রে অভিনয় করতে চাই না। কিন্তু এই ধারনা ভুল। দৃশ্যটি যদি চিত্রনাট্যের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ হলে আমার কোনও আপত্তি থাকবে না।'

বন্ধ করুন