বাড়ি > বায়োস্কোপ > সুশান্তকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ এনে করণ,সলমনসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের বিহার আদালতে
করণ,সলমন সহ আটজনের বিরুদ্ধে মামলা 
করণ,সলমন সহ আটজনের বিরুদ্ধে মামলা 

সুশান্তকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ এনে করণ,সলমনসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের বিহার আদালতে

  • সলমন খান,করণ জোহর, সঞ্জয় লীলা বনশালি সহ আট বলিউড ব্যক্তিত্বের বিরুদ্ধে সুশান্তকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়া সহ একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করলেন বিহারের এক আইনজীবী। 

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর জেরে এখন দুইভাগে ভাগ হয়ে গিয়েছে বলিউড। একদল সুশান্তের মৃত্যুর জন্য বলিউডের ‘প্রিভিলেজড ক্লাব’ সদস্যদের দায়ী করেছেন। বলিউডের স্বজনপোষণই দায়ি সুশান্তের মৃত্যুর জন্য-এমনই দাবি উঠছে খোদ বলিপাড়ার অন্দরমহল থেকেই। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে নেবে কোনও উল্লেখযোগ্য সূত্র এখনও অধরা মুম্বই পুলিশের।

এবার বিহারের মুজফফরপুরে সিজিএম আদালতে করণ জোহর,সলমন খান, একতা কাপুর, সঞ্জয় লীলা বনশালিসহ আট বলিউড ব্যক্তিত্বের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলেন সুধীর কুমার ওঝা নামের এক আইনজীবী। আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়া সহ ভারতীয় দণ্ডবিধির ,১০৯,৫০৪,৫০৬ নম্বর ধারায় মামলা দায়ের করেছেন আইনজীবী,খবর সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে। 

আইনজীবীর তাঁর অভিযোগের প্রতিলিপিতে জানিয়েছেন, সুশান্তকে সাতটি ছবি থেকে চক্রান্ত করে বার করে দেওয়া হয়েছে এবং বেশ কিছু ছবি মুক্তি পায়নি। এই পরিস্থিতি ও ওকে আত্মহত্যার দিকে ঠেলে দিয়েছে'।

প্রসঙ্গত সুশান্তের মৃত্যুর পর প্রাক্তন সাংসদ তথা কংগ্রেস নেতা সঞ্জয় নিরুপম দাবি করেন, ‘ছিছোড়ে’ হিট হওয়ার পর সুশান্ত সিং রাজপুত ৭টি ছবি সাইন করেছিল, কিন্তু ছয় মাসে ওর হাত থেকে এক এক করে প্রতিটা ছবি বেরিয়ে যায়। এর মাঝেই ঘরের ছেলের মৃত্যুর সিবিআই তদন্ত চেয়ে মঙ্গলবার পথে নামে পাটনাবাসী। পোড়ানো সহ সলমন খান,করণ জোহরদের কুশপুতুল,কোথাউ মোমবাতি নিয়ে মৌনমিছিল করেন বিহারবাসী। 

পাটনায় করণ,সলমনদের বয়কটের ডাক 
পাটনায় করণ,সলমনদের বয়কটের ডাক 

সুশান্ত যে ক্লিনিক্যাল ডিপ্রেশনে ভুগছিলেন তা নিশ্চিত করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সুশান্ত সিং রাজপুতের বাবা কেকে সিং এবং তাঁর দুই দিদির বয়ান রেকর্ড করেছে পুলিশ। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস সূত্রে খবর,সুশান্তের বাবা পুলিশকে জানিয়েছেন তাঁর ছেলে অবসাদগ্রস্ত ছিল না জানতেন না তিনি। হ্যাঁ,মাঝেসাঝে মন খারাপের কথা বলত,ব্যাস ওইটুকুই। সুশান্তের মৃত্যুর জন্য কারুর দিকে সন্দেহের আঙুল তোলেনি প্রয়াত অভিনেতার পরিবার,জানিয়েছেন মুম্বই পুলিশের এক সিনিয়ার অফিসার।

বন্ধ করুন