বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘একটা দিন নারী দিবসের শুভেচ্ছা না জানাইলেই নয়?’ ট্রোলিং নিয়ে বিস্ফোরক মধুমিতা
 মধুমিতা সরকার (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
 মধুমিতা সরকার (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

‘একটা দিন নারী দিবসের শুভেচ্ছা না জানাইলেই নয়?’ ট্রোলিং নিয়ে বিস্ফোরক মধুমিতা

  • ‘নারীদের সম্মান আপনারা এমনিতেই দেন না!’ বিস্ফোরক মন্তব্য মধুমিতার।

নারী দিবসের দিন বিস্ফোরক পোস্ট অভিনেত্রী মধুমিতা সরকারের। প্রতিদিনের ট্রোলিংয়ের জবাব পোস্টের মাধ্যমে এমনই কড়া ভাষায় জানালেন অভিনেত্রী। নিত্যদিন তিনি যেসব অপ্রস্তুত পরিস্থিতির শিকার হন সেসব কথা তুলে ধরতে বেছে নিলেন নারী দিবসের দিনকে। 

নারী দিবসের দিন সকলে যখন নারীদের শুভেচ্ছা জানাতে ব্যস্ত সেই সময় অভিনেত্রী তাঁর সামাজিক মাধ্যমের পাতায় পোস্ট করা একের পর এক ট্রোল পড়তে পড়তে তুলে ধরেন সমাজে নারীদের প্রকৃত অবস্থানের কথা। 

অভিনেত্রীর ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে প্রথমেই তিনি তাঁর অনুরাগীর কটাক্ষ করা কমেন্ট পড়ছেন। ভিডিওর শুরুতে তিনি বলেন, ‘ছেলেরা ফুলপ্যান্ট মেয়েরা হাফপ্যান্ট কেন পরবে?, তুমি তো বেবি হয়ে গেছ তোমাদের স্কুলে এমন খোলা চুলে যেতে দেয়! আমাদের তো পাছায় মারত। অভিনয়ে টিকতে না পেরে অশ্লীলতার পথ বেছে নিলেন মধুমিতা! আমি তো ভেবেছিলাম ভুল করে ‘নটি আমেরিকা’তে ঢুকে গিয়েছি।’ এগুলো বেশ কিছু বাছা বাছা কমেন্ট পড়ে শোনানোর পর অভিনেত্রী বিদ্রূপ করে বলেন, ‘সারা বছর এমন সব কমেন্টের বন্যায় ভরিয়ে দিয়ে এই একটা দিন নারী দিবসের শুভেচ্ছা না জানালেই নয়!’

মধুমিতা আরও বলেন, ‘আমার মনে হয় এই সব দিনগুলো লন্ডন, আমেরিকায় সেলিব্রেট করা উচিত। কারণ, এখানে তো ছেলে আর মেয়েদের এক চোখে দেখাই হয় না!’ অভিনেত্রী মনে করেন এই দেশে লিঙ্গ বৈষম্য এখনো মেটেনি। এখানে ছেলেদের আর মেয়েদের এখানে এক চোখে দেখাই হয়না। তাই এখানে নারী দিবস পালনের কোনো মানেই নেই।

‘একটা ছেলে যদি খালি গায়ে অথবা স্যান্ডো গেঞ্জি পরে ছবি পোস্ট করে তা হলে কোনও দোষ নেই। কিন্তু একটি মেয়ে যদি কাজের জন্য শাড়ি বা চুড়িদার ছাড়া মিনি স্কার্ট বা হট প্যান্ট পরে তখন সে কী হয়ে যায়? নটি আমেরিকা’র আর্টিস্ট!’ কেন এই দ্বিচারিতা? প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেন ‘বোঝে সে না বোঝে না’র সুবাদে চর্চায় উঠে আসা এই অভিনেত্রী। 

মধুমিতার স্পষ্ট কথা, ‘আগে মেয়েদের ঠিক করে সম্মানটা দিতে শিখুন, তারপর মেয়েরা এমনিই খুশি হয়ে যাবে’।

বন্ধ করুন