বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > How To Lose Belly Fat: পুজোর আগে হু-হু করে কমবে ভুঁড়ি! ফ্যাট থেকে হবেন ফিট, মানতে হবে এই ৬ টিপস
ভুঁড়ি কমাবেন কীভাবে? ছবি: শাটারস্টক (Shutterstock)

How To Lose Belly Fat: পুজোর আগে হু-হু করে কমবে ভুঁড়ি! ফ্যাট থেকে হবেন ফিট, মানতে হবে এই ৬ টিপস

ভুঁড়ি থাকলেই দুর্গাপুজোর সাজের দফারফা! তবে তার থেকেও বড় কথা হল, এর থেকে শরীরে ক্লান্তি, কোমর ও পায়ে যন্ত্রণা হতে পারে। এমনকি দীর্ঘ মেয়াদে বড়সড় রোগও হতে পারে। তাই নিজের স্বাস্থ্যের স্বার্থেই ভুঁড়ি কমান।

সামনেই দুর্গাপুজো। আর কয়েক সপ্তাহ পরেই উত্সবের আনন্দে মেতে উঠবেন সকলে। আর পুজো মানেই তো প্রতিদিন নতুন পোশাক। ফ্যাশনদুরস্ত সাজের ক্ষেত্রে একটাই সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়। সেটা হল ভুঁড়ি। বিশেষত বাঙালিদের একটু ভুঁড়ির প্রবণতা থাকে। অর্থাত্ পেট ও কোমরের আশেপাশে, সহজেই মেদ জমে যায়। আর এর ফলে পুরুষ হন বা মহিলা, ক্রপ টপ হোক বা নতুন জিন্স- কোনওটা পরেই আগের মতো মন ভরে না।

সত্যি বলতে, আপনার আসল রূপ আপনার মনেই। তাই বলে ভুঁড়িটাও অবহেলা করা চলবে না। কারণ এই ভুঁড়ি দিন দিন বাড়তেই থাকবে। আর এর থেকে শরীরে ক্লান্তি, কোমর ও পায়ে যন্ত্রণা হতে পারে। এমনকি দীর্ঘ মেয়াদে বড়সড় রোগও হতে পারে।

তবে চিন্তা করবেন না। একটু চেষ্টা করলেই ভুঁড়ি কমানো সম্ভব। এর জন্য কেবমাত্র নিচের ৬টি টিপস মেনে চলতে হবে। আর সেটা করলেই ভুঁড়ি ভ্যানিশ হয়ে যাবে। মোমের মতো গলবে চর্বি।

ভুঁড়ি কমাতে মেনে চলুন এই ৬টি নিয়ম:

শুদ্ধ কার্বোহাইড্রেট বাদ দিন- সম্পূর্ণ খোসা ছাড়ানো, পরিশুদ্ধ কার্বোহাইড্রেট এড়িয়ে চলুন। এগুলির মধ্যে ভাত, ময়দা, চিনি পড়ছে। তার বদলে, খোসা সহ কার্বোহাইড্রেট খান। যেমন খোসাসহ ডাল, আটার রুটি, ওটস, অঙ্কুরিত ছোলা ইত্যাদি। এই ধরণের খাবারে ফাইবার বেশি থাকে। কিন্তু ক্যালোরি কম। ফলে পেট অনেকক্ষণ ভর্তি থাকবে। কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যাও হবে না।

প্রচুর ফল ও শাক সবজি খান- গোটা ফল খাওয়ার অভ্যাস করুন। জুস পান করবেন না। তাছাড়া প্রতিটি আহারেই কোনও না কোনও শাক-সবজি রাখুন। দামি ব্রকোলি, গাজর, বেবিকর্ন-ই যে হতে হবে, এমনটা কিন্তু নয়। ঝিঙে, পটল, বরবটি, চিচিঙ্গে, বাঁধাকপি- যে কোনও সাধারণ সবজিরই যেন কোনও পদ রান্না হয়।

একটু সংযম করুন- আর তো মাত্র কয়েক দিন। এই সময়টুকুর জন্য সমস্ত রকমের অস্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া বাদ দিন। প্যাকেটজাত খাবার, তেলে ভাজা যে কোনও জিনিস, মিষ্টি সম্পূর্ণ বাদ দিন। পুজো এলে তো খাবেনই। আপাতত একটু না হয় অপেক্ষাই করবেন। আরও পড়ুন: ভাজাভুজি ছাড়ুন! বেছে নিন এই ৬টি স্বাস্থ্যকর স্ন্যাকস

প্রোটিন বেশি খান- ওজন কমাতে খাওয়াদাওয়া একেবারে ছেড়ে দেবেন না যেন। পর্যাপ্ত পরিমাণে প্রোটিন খাবেন। খাদ্যতালিকায় ডিম, দুধ, পনির, ডাল, চিকেন, মাছ ইত্যাদি যেন অবশ্যই থাকে।

ব্যায়াম- ওজন কমাতে একটু শারীরিক কসরত করতেই পারেন। এই কয়েকদিনে হয় তো খুব বেশি কিছু পার্থক্য হবে না। তবে ভাল অভ্যাস তৈরি হয়ে যাবে। তাছাড়া মানসিক স্বাস্থ্য থেকে শুরু করে ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বৃদ্ধি- ব্যায়াম করার কিন্তু অনেক সুফল রয়েছে।

বডি ফিটনেসে নজর দিন- ব্যায়াম বলতে খালি পেটের ব্যায়াম করলে কিন্তু চলবে না। শরীরে কখনও নির্দিষ্ট স্থানের মেদ আলাদা করে কমানো যায় না। কমলে সারা শরীরের একসঙ্গেই কমে। তাই দৌড়, স্কিপিং, ওজন নিয়ে ব্যায়াম, সাঁতার, HIIT ব্যায়ামের অভ্যাস করুন। সারা শরীরের ফিটনেস বাড়তে শুরু করলে এমনিতেই ভুঁড়ি কমবে।

বন্ধ করুন