যে সরকারি হাসপাতালে ভর্তি ভারতের প্রথম করোনাভাইরাসের রোগী।  (AP)
যে সরকারি হাসপাতালে ভর্তি ভারতের প্রথম করোনাভাইরাসের রোগী। (AP)

চিকিত্সায় সাড়া দিচ্ছেন ভারতের প্রথম করোনাভাইরাস রোগী

ত্রিশূর শহরে বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি তিনি।

চিকিত্সায় সাড়া দিচ্ছেন ভারতের প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী। বর্তমানে তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানিয়েছেন কেরালার স্বাস্থ্যমন্ত্রী কে কে শৈলজা। কেরালার ত্রিশূর শহরের নিবাসী ওই মহিলার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার জন্য মেডিক্যাল বোর্ড গঠিত করা হয়েছে।

গতকাল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক নিশ্চিত ভাবে বলার পরেই শৈলজা ত্রিশূরে চলে আসেন রোগীর পরিস্থিতি তত্ত্বাবধান করার জন্য। প্রতিদিন বিকালে মেডিক্যাল বুলেটিন দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী। সবাইকে সতর্ক থাকতে বললেও আতঙ্ক ছড়ানোর থেকে বিরত থাকতে অনুরোধ করেছেন তিনি।

করোনাভাইরাসের রোগীর সঙ্গে যাদের দেখা সাক্ষাত্ হয়েছিল, প্রায় সকলকেই অবজার্ভেশনে রাখা হয়েছে। মোট ১৬৫ জন হাসপাতালে ভর্তি। এরমধ্যে ১৫জনকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে।

জানা গিয়েছে প্রাথমিক ভাবে রোগীর মেডিক্যাল পরীক্ষায় কিছু পাওয়া যায়নি। কিন্তু এরপরেই তাঁর গলায় ব্যাথা ও নিশ্বাস নিতে কষ্ট হতে থাকে। তখনই তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আক্রান্ত মহিলার সঙ্গে যে দুইজন উহান থেকে ফিরেছেন, তাঁদের রক্তের রিপোর্ট এখনও আসেনি। নিপাহর সময় যে সব বিশেষজ্ঞরা সাহায্য করেছিলেন, তাদের শলা-পরামর্শ নিচ্ছে রাজ্য সরকার। একই সঙ্গে হোমিওপ্যাথি, ইউনানি ইত্যাদি ওষুধ নিতেও মানা করেছে কেরালা সরকার।

এখনও পর্যন্ত করোনাভাইরাসে চিনে ২১৩ জন মারা গিয়েছেন। করোনাভাইরাসকে পাবলিক হেল্থ এমার্জেন্সি বলে ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্যা সংস্থা।








বন্ধ করুন