বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভুয়ো ওয়েবসাইটের খোঁজ পেল স্বাস্থ্যমন্ত্রক, দ্রুত বন্ধ করে তদন্তের নির্দেশ জারি
ভুয়ো ওয়েবসাইট
ভুয়ো ওয়েবসাইট

ভুয়ো ওয়েবসাইটের খোঁজ পেল স্বাস্থ্যমন্ত্রক, দ্রুত বন্ধ করে তদন্তের নির্দেশ জারি

  • শুক্রবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের মতো ভুয়ো ওয়েবসাইট তৈরি করে কোভিড–১৯ সংক্রমণের বিরুদ্ধে টিকাকরণের প্রস্তাব দেওয়ার বিষয়টি নজরে আসে।

এবার ভুয়ো ওয়েবসাইটের কবলে পড়ল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। শুক্রবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের মতো ভুয়ো ওয়েবসাইট তৈরি করে কোভিড–১৯ সংক্রমণের বিরুদ্ধে টিকাকরণের প্রস্তাব দেওয়ার বিষয়টি নজরে আসে। ভারতের টিকাকরণ পদ্ধতি নিয়ে মানুষের মধ্যে এই ধরনের বিভ্রান্তিকর বার্তা ছড়ানোর জন্য মন্ত্রকের পক্ষ থেকে তা অবিলম্বে বন্ধ করে দেওয়া হয়। এমনকী এই ভুয়ো ওয়েবসাইটের বিরুদ্ধে তদন্ত করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

এই বিষয়ে মন্ত্রকের পক্ষ থেকে অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘‌দয়া করে সতর্ক থাকুন। এ ধরনের ভুয়ো ওয়েবসাইটের উপর বিশ্বাস রাখবেন না।’‌ ভুয়ো ওয়েবসাইটটি একেবারে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের কোভিড–১৯ ড্যাশবোর্ডের ধাঁচে তৈরি করা। সেখানে ভুয়ো লিঙ্ক তৈরি করে ভ্যাকসিনের জন্য আবেদন করতে বলা হয়েছে। এমনকী ওই ওয়েবসাইটে টিকাকরণের জন্য ৪ থেকে ৬ হাজার টাকা দেওয়ার কথাও উল্লেখ করেছে। যা সন্দেহ হয় অনেকের এবং কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকেরও নজরে আসে।

এদিন মন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, কো–উইন ও আরোগ্য সেতু অ্যাপ ছাড়া অন্য কোনও অ্যাপ তৈরি করেনি মন্ত্রক। বিশেষ করে টিকাকরণের রেজিস্ট্রেশনের জন্যও অন্য কোনও ওয়েবসাইট বা অ্যাপ নেই। তবে এটাই প্রথমবার নয়, দেশে করোনা টিকাকরণ শুরু হওয়ার পাশাপাশি প্রতারণামূলক কাজকর্ম শুরু হয়ে যায়। কো–উইন অ্যাপ বাজারে আসার আগে একই নামে ভুয়ো অ্যাপ খোলা হয়েছিল। আর তাতে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত হয়। তবে সেই অ্যাপও সফল হয়নি।

উল্লেখ্য, গত ১৬ জানুয়ারি থেকে দেশে করোনা টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হয়েছে। আর ভারত বেশ ভালো কাজ করছে টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে। ইতিমধ্যে ৭০ লক্ষ মানুষ টিকা পেয়ে গিয়েছে। পরের দফায় ৫০ বছর বয়সের বেশি মানুষজনকে এই টিকা দেওয়া হবে বলে খবর। আর সেই নথি নেওয়া হবে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ এবং নির্বাচনী দফতর থেকে।

বন্ধ করুন