বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ঘাটতি মেটাতে আরও কড়া কেন্দ্র, পুরোপুরি বন্ধ অক্সিজেনের বাণিজ্যিক ব্যবহার
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই

ঘাটতি মেটাতে আরও কড়া কেন্দ্র, পুরোপুরি বন্ধ অক্সিজেনের বাণিজ্যিক ব্যবহার

  • এর আগে ৯টি ইনডাস্ট্রিকে অক্সিজেন ব্যবহার করার ছাড়পত্র দিয়েছিল কেন্দ্র।

করোনা আবহে অক্সিজেনের ঘাটতি মাথায় চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে সব বিশেষজ্ঞের। এই অবস্থে বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে অক্সিজেন ব্যবহারের উপর বিধিনিষেধ জারি করেছিল কেন্দ্র। তবে অর্থনীতিকে সচল রাখার স্বার্থে ৯টি ক্ষেত্রকে ছাড় দেওয়া হয়েছিল সেই তালিকা থেকে। তবে এবার অক্সিজেন যোগানের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠা কেন্দ্র বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে তরল অক্সিজেন ব্যবহারের উপর সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা জারি করল। জানিয়ে দেওয়া হয়েছে উত্পাদিত অক্সিজেন পুরোটাই সরকারকে দিতে হবে এবং তা মেডিক্যাল ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হবে।

উল্লেখ্য, দেশে অক্সিজেনের ঘাটতি মেটাতে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে কেন্দ্র। এই আবহে শনিবারই কেন্দ্রের তরফে ঘোষণা করা হয়, করোনার ভ্যাকিসন ও অক্সিজেন আমদানির উপর কর ও হেল্থ সেসে আগামী তিন মাসের জন্য ছাড় দেওয়া হবে।

দিল্লি, মহারাষ্ট্র সহ একাধিক রাজ্যে অক্সিজেনের হাহাকার দেখা দিয়েছে। অক্সিজেনের জোগান চালু রাখতে মরিয়া হয়ে উঠেছে কেন্দ্র ও রাজ্য প্রশাসন। এই পরিস্থিতিতে বাইরে থেকে অক্সিজেন আমদানিও করা হচ্ছে।

এদিকে পরিস্থিতি মোকাবিলায় একাধিক বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী এরপর আজ দুপুরে টুইট করে তিনি জেলায় জেলায় অক্সিজেন প্ল্যান্ট তৈরি করার কথা জানিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, প্রতি জেলায় অক্সিজেন প্ল্যান্ট হবে। যা অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিত করবে। এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত। যা হাসপাতাল ও সাধারণ মানুষককে আরও বেশি পরিমাণে অক্সিজেন সরবরাহে সাহায্য করবে।

জানা গিয়েছে, পিএম কেয়ার ফান্ডের টাকায় ওই অক্সিজেন প্ল্যান্টগুলি বসানো হবে। চলতি বছরে ওই প্রকল্পের জন্য ২০১.৫৮ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হবে। এই প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন হলে দীর্ঘদিন অক্সিজেন সরবরাহে কোনও সমস্য়া হবে না। এই মুহূর্তে ৫৫১টি প্ল্যান্ট বসানোর কাজ চলবে বলে জানানো হয়েছে।

 

বন্ধ করুন