বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > যাত্রী, রেলকর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুক পঞ্জাব, ট্রেন চালাতে শর্ত রেলমন্ত্রীর
পঞ্জাবে রেললাইন অবরোধ করে কৃষকদের বিক্ষোভ। ইনসেটে, রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। ফাইল ছবি
পঞ্জাবে রেললাইন অবরোধ করে কৃষকদের বিক্ষোভ। ইনসেটে, রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। ফাইল ছবি

যাত্রী, রেলকর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুক পঞ্জাব, ট্রেন চালাতে শর্ত রেলমন্ত্রীর

  • টুইটে বলা হয়েছে, ‘‌রাজ্য জুড়ে যাতে সুষ্ঠুভাবে ট্রেন চলাচল করতে পারে এবং বাইরে থেকে যাতে পঞ্জাবে ট্রেন ঢুকতে পারে তার অনুমতি দিক সরকার। পণ্য এবং যাত্রীবাহী ট্রেনগুলি যাতে পঞ্জাবের মানুষের সেবা করতে পারে সেটাই চায় রেল।’‌

যাত্রী, রেলকর্মী এবং সার্বিক পরিকাঠামোর নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে শনিবার পঞ্জাব সরকারের কাছে রাজ্যের রেললাইন, স্টেশন ও রেলের সমস্ত সম্পত্তি অবরোধমুক্ত করে স্বাভাবিক পরিস্থিতি নিয়ে আসার আবেদন জানালেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। এদিন এক টুইটে তিনি জানান, ‘‌ছটপুজো, দীপাবলি এবং গুরুপুরবের এই উৎসবের মরশুমে পঞ্জাবের লোকজন ট্রেনে যাতায়াত অর্থাৎ ভ্রমণ করতে চান।’‌

রাজ্যে সম্পূর্ণভাবে রেল পরিষেবার সুরক্ষা সুনিশ্চিত করতে এদিন টুইটে পঞ্জাব সরকারের কাছে আবেদন জানান রেলমন্ত্রী। টুইটে বলা হয়েছে, ‘‌রাজ্য জুড়ে যাতে সুষ্ঠুভাবে ট্রেন চলাচল করতে পারে এবং বাইরে থেকে যাতে পঞ্জাবে ট্রেন ঢুকতে পারে তার অনুমতি দিক সরকার। পণ্য এবং যাত্রীবাহী ট্রেনগুলি যাতে পঞ্জাবের মানুষের সেবা করতে পারে সেটাই চায় রেল।’‌

কেন্দ্রের নতুন কৃষি বিলের বিরোধিতায় কয়েক সপ্তাহ ধরে পঞ্জাব জুড়ে রেললাইন অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন কৃষকরা। যদিও শুক্রবার পঞ্জাব সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়, অমৃতসর জেলার জান্ডিয়ালা স্টেশন ছাড়া রাজ্যের সমস্ত রেললাইন ও স্টেশন থেকে অবরোধ তুলে নিয়েছেন কৃষকরা। সরকারের দাবি, ওই রুটগুলিতে স্বাভাবিক পরিষেবা ফের শুরু করতে পারে রেল। সরকারের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, ২১টি এলাকা যেখানে কৃষকরা প্রতিবাদ দেখাচ্ছিলেন সে সব জায়গায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়েছে। ওখানে এখন পণ্যবাহী ট্রেন চলতেই পারে।

এদিকে, অবরোধের জেরে পঞ্জাবে পণ্যবাহী ট্রেন না আসায় সেখানে কয়লার মারাত্মক অভাব দেখা দিয়েছে। আর তার জেরে বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুৎ পরিষেবা ব্যাহত হচ্ছে। উল্লেখ্য, সম্প্রতি কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার এক বৈঠকের পর তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর বলেছিলেন, ‘চাষিদের সঙ্গে কথা বলে রেল অবরোধ তোলা উচিত ‌পঞ্জাব সরকারের। কৃষি আইনের বিরুদ্ধে যে রাজনৈতিক আন্দোলন চলছে তাতে এবার ইতি টানা উচিত।’

বন্ধ করুন