বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > চাকরি থেকে বরখাস্ত করেছিল TCS, সাত বছরের আইনি লড়াই শেষে জিতলেন কর্মচারী
সাত বছর আগে চাকরি থেকে বরখাস্ত করেছিল টিসিএস। (সংগৃহীত)

চাকরি থেকে বরখাস্ত করেছিল TCS, সাত বছরের আইনি লড়াই শেষে জিতলেন কর্মচারী

  • আদালত জানিয়েছে, তাঁকে কাজে ফেরৎ আনতে হবে। সাত বছরে যে বেতন ছিল সেটাও মিটিয়ে দিতে হবে। টিসিএস কর্মচারীর এই লড়াইকে ঘিরে ইতিমধ্যে জোর চর্চা তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে।

২০১৫ সালে তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা টাটা কনসালটেন্সি সার্ভিসের চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছিল থিরুমালাই সেলভান বলে এক কর্মচারীকে। ৮ বছরেরও বেশি সময় ধরে তিনি তথ্য প্রযুক্তি সংস্থায় চাকরি করতেন। এদিকে টিসিএস তাঁকে জানিয়ে দিয়েছিল তাঁর পারফরম্যান্স ঠিক প্রত্যাশা মতো নয়। সেই সময় ওই ব্যক্তি সংস্থায় ম্যানেজারের পোস্টে ছিলেন। কিন্তু আচমকাই মোটা বেতনের চাকরিটি খোয়ালেন তিনি।

এরপর ফ্রিল্যান্স সফটওয়ার কনসালট্যান্ট হিসাবে তিনি কাজ করা শুরু করেন। রিয়েল এস্টেটের ব্যাবসাতেও ব্রোকার হিসাবে কাজ করা শুরু করেন তিনি। মেরে কেটে সেই সময় তাঁর আয় হত ১০ হাজার টাকা।

যে কটা টাকা জমানো ছিল তার উপর ও স্ত্রীর আয়ের উপর সংসার চালাচ্ছিলেন তিনি। তবে চাকরি ফেরতের দাবিতে তিনি সিটি লেবার কোর্টে আবেদন করেছিলেন। তিনি একটি সংবাদপত্রকে জানিয়েছেন, গত সাত বছরে অন্তত ১৫০ বার আদালতে গিয়েছি। এবার দীর্ঘ সাত বছরের লড়াই শেষ। চাকরি ফিরে পেলেন ওই ব্যক্তি। বর্তমানে তাঁর বয়স ৪৮ বছর।

আদালত জানিয়েছে, তাঁকে কাজে ফেরৎ আনতে হবে। সাত বছরে যে বেতন ছিল সেটাও মিটিয়ে দিতে হবে।

আদালতের পর্যবেক্ষণ সেলভানের প্রাথমিক কাজ ছিল একজন দক্ষ কর্মীর। তাঁর প্রকৃত কাজকে আড়াল করার চেষ্টা করেছিল সংস্থা। তবে আইটি কর্মীদের ফোরাম এই আইনী লড়াইতে সেলভানের পাশে ছিল। তাদের ওয়েবসাইটে তাঁরা জানিয়েছেন, কর্মচারীদের যারা চাকরি থেকে ইস্তফা দিতে বাধ্য করছেন তাদের জন্য় এই নির্দেশ একটি সতর্কবার্তা। চেন্নাই FITE এই টিসিএস কর্মীকে অভিনন্দন জানিয়েছে।

বন্ধ করুন