বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > তুকতাক! বধূর মাথা কেটে গাছে টাঙিয়ে দিল অভিযুক্ত, স্বামী ও কন্যাকেও খুন
এক দম্পতি ও তার নাবালিকা কন্যার দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। প্রতীকী ছবি।

তুকতাক! বধূর মাথা কেটে গাছে টাঙিয়ে দিল অভিযুক্ত, স্বামী ও কন্যাকেও খুন

  • পুলিশ সুপার যশপাল রাজপুত বলেন, তাকে ডাইনী সন্দেহ করে খুন করা হয়। গ্রামবাসীদের কাছে ওই ব্যক্তি এই বার্তা দিতে চেয়েছিলেন, যে মহিলার কোনও ক্ষমতাই নেই। শিশুটিকে খুন করা হয়েছিল কারণ ওরা ভেবেছিল তারও হয়তো মায়ের মতো দৈব শক্তি আছে।

শ্রুতি তোমার

ভয়াবহ ঘটনা ভূপালে। সোমবার রাতে মান্ডলা জেলায় এক দম্পতি ও তার নাবালিকা কন্যার দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জেনেছে, ঝাড়ফুক, কালাজাদু নিয়ে সন্দেহের জেরে এই ঘটনা। অভিযুক্ত ব্যক্তি বধূর মাথাটা দেহ থেকে আলাদা করে স্থানীয় একটি গাছে টাঙিয়ে দিয়েছিল।

পুলিশ সূত্রে খবর নর্মদ সিং(৬২), তার স্ত্রী সুক্রত বাই(৫৭) ও ১২ বছরের কন্যা মহিমাকে খুন করা হয়েছে। এই ঘটনায় নর্মদের দুই ভাইপোকে পুলিশ আটক করেছে। তার মধ্যে একজন মতিলাল, এই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত।

পুলিশ সুপার যশপাল রাজপুত বলেন, তাকে ডাইনী সন্দেহ করে খুন করা হয়। গ্রামবাসীদের কাছে ওই ব্যক্তি এই বার্তা দিতে চেয়েছিলেন, যে মহিলার কোনও ক্ষমতাই নেই। শিশুটিকে খুন করা হয়েছিল কারণ ওরা ভেবেছিল তারও হয়তো মায়ের মতো দৈব শক্তি আছে।

কিন্তু কেন সুক্রতের উপর এই আক্রেশ ছিল তাদের? পুলিশ সূত্রে খবর, মতিলালের বাবা বছর দুয়েক আগে আত্মহত্যা করেছিলেন। সেই সময় ওই মহিলা বলতেন, দেখছিস আমার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করলে কী হয়? এদিকে মতিলালের পরিবারের উপরেও কালা জাদু প্রয়োগ করা হবে বলে ভয় দেখাতেন ওই মহিলা। সেই রাগেই কুড়ুল দিয়ে তার গলা কেটে দেয় অভিযুক্তরা। এমনটাই মনে করছেন পুলিশ।

 

বন্ধ করুন