বাড়ি > ময়দান > জায়ান্ট কিলার লিয়ঁকে উড়িয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখ
জয়ের পর বায়ার্ন ফুটবলাররা। ছবি- টুইটার।
জয়ের পর বায়ার্ন ফুটবলাররা। ছবি- টুইটার।

জায়ান্ট কিলার লিয়ঁকে উড়িয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখ

  • ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের খেতাবি লড়াইয়ে নেইমারদের মুখোমুখি লেওয়ানডোস্কিরা।

প্রত্যাশিতভাবেই উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে উঠল বায়ার্ন মিউনিখ। লিসবনে পা দেওয়া যাবৎ যেরকম ধ্বংসাত্মক ফুটবল উপহার দিচ্ছে জার্মান চ্যাম্পিয়নরা, তাতে লিয়ঁর প্রতিরোধ তাদের কতক্ষণ আটকে রাখতে পারবে, তা নিয়ে সংশয় ছিল। আটকাতে পারেওনি। শেষমেশ অলিম্পিয় লিয়ঁকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে খেতাবি লড়াইয়ে জায়গা করে নেয় পাঁচবারের ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নরা।

লকডাউনের বিরতির পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগ পুনরায় শুরু হলে ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে এই নিয়ে মোট তিনটি ম্যাচে মাঠে নামে বায়ার্ন মিউনিখ। চেলসিকে দ্বিতীয় লেগের প্রি-কোয়ার্টারে তারা ৪-১ গোলে হারিয়ে দেয়। কোয়ার্টার ফাইনালে লিওনেল মেসির বার্সেলোনাকে ৮-২ গোলে বিধ্বস্ত করে বুন্দেশলিগা চ্যাম্পিয়নরা।

লিয়ঁ প্রি-কোয়ার্টারে জুভেন্তাস ও কোয়ার্টারে ম্যাঞ্চেস্টার সিটিকে হারিয়ে টুর্নামেন্টে জায়ান্ট কিলারের তকমা আদায় করে নিলেও বায়ার্নের সামনে তাদের সম্মোহন কাজ করেনি। ফলে কার্যত একতরফাভাবে হেরে সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নিতে হয় তাদের।

সেমিফাইনালের প্রথমার্ধে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় বায়ার্ন। দু'টি গোলই করেন সার্জ গ্ন্যাব্রি। ১৮ মিনিটে জোশুয়া কিমিখের পাস থেকে গোলের খাতা খোলেন তিনি। পরে ৩৩ মিনিটে গোল করে ব্যবধান দ্বিগুন করেন তিনিই।

ম্যাচের শেষ মুহূর্তে কিমিখের পাস থেকেই দলের হয়ে তৃতীয়বার লিয়ঁর জালে বল জড়ান লেওয়ানডোস্কি। তিনি ৮৮ মিনিটে গোল করে স্কোর-লাইন ৩-০ করেন। চলতি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে টানা ৯টি ম্যাচে সাকুল্যে ১৫টি গোল করলেন লোওয়ানডোস্কি।

বায়ার্ন এই নিয়ে মোট ১১ বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে ওঠে। শেষবার তারা ২০১৩ সালে খেতাবি লড়াইয়ে জায়গা করে নেয় এবং ট্রফিও ঘরে তোলে। এবার ফাইনালে জার্মান জায়ান্টরা মুখোমুখি হবে ফরাসি চ্যাম্পিয়ন পিএসজি'র।

বন্ধ করুন