বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ভাগ্য বদলাতে ১৬ লাখ টাকা দিয়ে জ্যোতিষী এনেছিল AIFF, যার ঠিকানাই ভুয়ো!
এশিয়ান কাপের যোগ্যতাঅর্জন পর্বে খেলা ভারতীয় দল। ছবি- পিটিআই। (PTI)

ভাগ্য বদলাতে ১৬ লাখ টাকা দিয়ে জ্যোতিষী এনেছিল AIFF, যার ঠিকানাই ভুয়ো!

  • সেই জ্যোতিষী নাকি জাতীয় দলের তিনটি সেশনও নিয়েছিলেন।

সদ্য শেষ হয়েছে এএফসি এশিয়ান কাপের যোগ্যতা অর্জন পর্ব। ভারতীয় দল নিজেদের তিনটি ম্যাচ জিতেই গ্রুপে শীর্ষস্থানে শেষ করে পরের বছরের এশিয়ান কাপের জন্য কোয়ালিফাই করেছে। খেলায় পারফরম্যান্সের পাশাপাশি ভাগ্যও সহায় হতে হয়। সম্ভবত সেই বিষয়টিই একটু বেশিই সিরিয়াসলি নিয়ে ফেলেছিল ভারতীয় ফুটবল ফেডারেশন। দলের ভাগ্য শুধরাতে নাকি ফেডারেশন এক জ্যোতিষ কোম্পানিকে নিযুক্ত করেছিল।

দলের অন্দরমহলে থাকা এক ব্যক্তি PTI-কে এক সাক্ষাৎকারে জানান, ‘একজন মোটিভেটারকে এশিয়ান কাপের আগে ভারতীয় দলে নিযুক্ত করেছিল ফেডারেশন। পরবর্তী সময়ে জানা যায় যে কোম্পানিকে নিযুক্ত করা হয়েছিল, সেটি আসলে জ্যোতিষী কোম্পানি। সোজা ভাষায় একজন জ্যোতিষকে ভারতীয় দলের সঙ্গে নিযুক্ত করা হয়েছিল, যাকে ১৬ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়।’ সেই জ্যোতিষ নাকি জাতীয় দলের তিনটি সেশনও নিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন:- কীভাবে এড়ানো যাবে নির্বাসন? ভারতের ভবিষ্যতের গতিপথ বেঁধে দিল FIFA-AFC কমিটি

তবে ঘটনার শেষ এখানেই নয়। দক্ষিণ দিল্লির এই কোম্পানির যে ঠিকানা দেওয়া হয়েছিল, খোঁজ করে দেখা গিয়েছে সেই ঠিকানা নাকি ভুয়ো। অর্থাৎ এমনিতেই প্রফুল প্যাটেল সভাপতির পদ থেকে উৎখাত হওয়ার পর চাপে থাকা ফেডারেশনের বিরুদ্ধে আর্থিক তছরুপিরও অভিযোগ উঠেছে। The Telegraph India-র রিপোর্ট অনুযায়ী পুরো ঘটনাটি নাকি সুপ্রিম কোর্ট নির্ধারিত কমিটি ফেডারেশন কর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করার পরেই সামনে আসে।

আরও পড়ুন:- দিল্লির ফুটবল হাউসে সব খতিয়ে দেখলেন ফিফার প্রতিনিধি দল, তার আগে ছুটিতে AIFF সচিব

ফেডারেশন কর্তারা জানান ওই কোম্পানিকে দলকে ‘স্ট্যাটিটিক্স’ প্রদান করার জন্য নেওয়া হয়েছিল। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় আর্থিক তছরুপির গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। উঠেছে সমালোচনার ঝড়ও। প্রাক্তন ভারতীয় গোলকিপার তনুময় ঘোষ গোটা ঘটনার কড়া নিন্দা করে জানান, ‘এমন সময় যখন ফেডারেশন বিভিন্ন বয়সভিত্তিক লিগ করাতে ব্যর্থ হওয়ার পাশাপাশি একাধিক টুর্নামেন্ট বন্ধ করেছে, সেই সময় এমন ঘটনা ভারতীয় ফুটবলের ছবিটা আরও খারাপ করে। সুপ্রিম কোর্ট নির্ধারিত কমিটির এর গোড়ায় পৌঁছে দোষীদের শনাক্ত করা প্রয়োজন। এমন না জানি আরও কতকিছু লুকিয়ে রয়েছে।’ নিঃসন্দেহে এই ঘটনায় আরও একবার ভারতীয় ফুটবলের ছবিটা নষ্ট হল।

বন্ধ করুন