বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > চুক্তিপত্রে সই করবে না ইস্টবেঙ্গল, তা হলে কি আর লিগ, ISL খেলা হবে না লাল-হলুদের?
ইস্টবেঙ্গল ক্লাব।
ইস্টবেঙ্গল ক্লাব।

চুক্তিপত্রে সই করবে না ইস্টবেঙ্গল, তা হলে কি আর লিগ, ISL খেলা হবে না লাল-হলুদের?

  • ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের কর্মসমিতির সদস্যদের নিয়ে শুক্রবার ক্লাবে তাঁবুতেই রুদ্ধদ্বার বৈঠক হয়। আর সেই বৈঠকের পরেই প্রেস বিজ্ঞপ্তি জারি করে লাল-হলুদের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, শ্রী সিমেন্টের অনৈতিক শর্ত মেনে নিয়ে, কোনও ভাবেই চুক্তিতে সই করবে না ইস্টবেঙ্গল।

বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে ইস্টবেঙ্গল কর্তাদের জট একেবারেই কাটল না। কর্তারা নিজেদের সিদ্ধান্তেই অনড় থাকলেন। শুক্রবার কর্মসমিতির বৈঠকের পর লাল-হলুদ কর্তাদের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, তাঁরা কোনও ভাবেই চুক্তিপত্রে সই করবেন না। এর কারণ হিসেবে তাঁরা দাবি করেছেন, সভ্য, সমর্থকদরে স্বার্থক্ষুন্ন হয়, এমন কোনও চুক্তি তাঁরা মানবেন না।

ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের কর্মসমিতির সদস্যদের নিয়ে শুক্রবার ক্লাবে তাঁবুতেই রুদ্ধদ্বার বৈঠক হয়। আর সেই বৈঠকের পরেই প্রেস বিজ্ঞপ্তি জারি করে লাল-হলুদের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, শ্রী সিমেন্টের অনৈতিক শর্ত মেনে নিয়ে, কোনও ভাবেই চুক্তিতে সই করবে না ইস্টবেঙ্গল।

ক্লাবের সচিব কল্যাণ মজুমদার সহ এ দিনের বৈঠকে ২৫ জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন। প্রত্যেকেই চুক্তিতে সই না করার বিষয়ে সহমত হয়েছেন। কল্যাণ মজুমদারের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে পরিষ্কার ভাবে লেখা রয়েছে, ‘সভাপতির নেতৃত্বে আমরা সকল এক্সিকিউটিভ কমিটির সদস্য সিদ্ধান্ত নিয়েছি, যে এগ্রিমেন্ট ক্লাবকে চিরতরে এক তরফা দিয়ে দেবার শর্তাবলী রয়েছে, যে এগ্রিমেন্টে সদস্যদের অসম্মান এবং তাদের অধিকার খর্ব করে দেওয়ার শর্তাবলী রয়েছে, যে এগ্রিমেন্টে ক্লাবের মৌলিক অদিকার নেই, যে এগ্রিমেন্টে ক্লাবের মাঠ, ক্লাবের লোগো, ক্লাবের নাম, টেন্ট সহ সমস্ত কিছু চিরতরে নিয়ে নেওয়ার এবং ক্লাবকে সেগুলো ব্যবহার করতে না দেওয়ার শর্তাবলী রয়েছে, যে এগ্রিমেন্টে ক্লাবের কোটি কোটি সদস্য সমর্থগের চিরকালিন আত্মাভিমানে আঘাত ও যে এগ্রিমেন্টে সমর্থকদের বলা হয় ট্রেস পাসার্স উইল বি প্রসিকিউটেড, সেই এগ্রিমেন্টে আমরা সই করব না।’

ইস্টবেঙ্গলের বিজ্ঞপ্তি।
ইস্টবেঙ্গলের বিজ্ঞপ্তি।

এই চুক্তিতে সই না করার অর্থ কলকাতা লিগে খেলা হবে না ইস্টবেঙ্গলের। এই চুক্তিতে সই না করার অর্থ আইএসএল খেলা নিয়েও অনিশ্চয়তা তৈরি হয়ে গিয়েছে। প্রশ্ন উঠে গিয়েছে, ইস্টবেঙ্গল কি এই বছর কোনও টুর্নামেন্টেই অংশ নেবে না? লাল-হলুদের কর্মসমিতির তরফে ক্লাবের সভ্য, সমর্থক এবং প্রাক্তন ফুটবলারদের এই বিষয়ে নিজেদের মতামত দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। যা পরিস্থিতি তাতে দুই পক্ষের মতানৈক্য এবং ইগোর কারণে প্রথম বার ভারতীয় ফুটবলে একটা বড় অঘটনই ঘটতে চলেছে। ইস্টবেঙ্গল যদি এই বছর কোনও টুর্নামেন্টে অংশ না নেয়, তবে ভারতীয় ফুটবল ইতিহাসে, সেটা অঘটন ছাড়া অন্য কী হবে!

বন্ধ করুন